উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় যা বললেন জেলা প্রশাসক

মাসুদ রানা ॥

চাঁদপুর জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে । ১৬ জানুয়ারি,সোমবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান। তিনি বলেন,সরকারের অনেক উন্নয়নমূলক মূলক কাজ হচ্ছে কিন্তু এগুলোতে তেমন কোন প্রচার-প্রচারণা নেই। সেদিকে আমাদের বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। যেমন যুব উন্নয়নে প্রচুর পরিমাণে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এই প্রশিক্ষণগুলো কারা করছে কিভাবে করছে এটা কিন্তু কোন ভাবেই প্রচার হয় না। শুধু যুব উন্নয়ন নয় আমাদের অনেক ডিপার্টমেন্ট আছে যেগুলোতে কাজের প্রশিক্ষণ দেওয়া। এই প্রশিক্ষণগুলো যদি এটলিস্ট এই ফোরামে আলোচনা হয় তাহলে আমরা অনেকে জানতে পারি কারণ এখানে সরকারি অনেক ডিপার্টমেন্টের লোক আছে। আমরা যদি নিজেরা নিজেরা আলোচনা করি তাহলেও অনেক কিছু জানতে পারি। তবে আপনার ডিপার্টমেন্টে কি কাজ করছেন এগুলো যদি আমরা এখানে আলোচনা করি তাহলেও প্রচার প্রচারণা হবে। আমাদের জেলায় প্রায় ৬৮ থেকে ৬৯টা সরকারি বিভাগ আছে। সব বিভাগের আলোচনা এখানেই হয়। কোন একটা বিভাগ যদি তার কোন প্রোগ্রামের কথা আলোচনা করে তাহলে এ ফ্লোরে যে অফিসাররা আছে তাদের ইউনিয়নে গিয়ে তারা অফিসারদেরকে বললে সেক্ষেত্র অনেক প্রচার-প্রচারণা হয়ে যাবে ।

তিনি আরো বলেন, আমাদের মেরিন টেকনোলজি যে কলেজটি আছে,এখানে অনেক প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। সেখানে আমাদের কি কি প্রশিক্ষণ চলে সেগুলো যদি আমরা প্রচার-প্রচারণা করি তাহলে সাধারণ জনগণ এগুলোর সুফল ভোগ করবে বলে আমি মনে করি।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন এর সঞ্চালনায় আর বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান,
মেয়র এডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল,স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত নারী বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুর রহমান চৌধুরী,ফরিদগঞ্জ উত্তর উপজেলার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারী,জেলা মৎস্য কর্মকর্তা গোলাম মেহেদী হাসান,জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রজত শুভ্র সরকার,মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ এমদাদুল ইসলাম মিঠুন, জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম,আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

শেয়ার করুন: