কচুয়ায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণ ও ঢেউটিন বিতরণ

কচুয়া প্রতিনিধি ॥

কচুয়ার উপজেলার দোঘর গ্রামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে ত্রান সহায়তা,কম্বল ও ঢেউটিন বিতরন করা হয়েছে। শনিবার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মহোদয়ের নির্দেশনায়, জেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় ও স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. মহীউদ্দিন খান আলমগীরের পরামর্শক্রমে প্রতিটি পরিবারের মাঝে ২ ব্যান্ডেল ঢেউটিন, ৬ হাজার টাকার চেক, ২০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল,তেল ০১ কেজি, চিনি ০১ কেজি, লবন ০১ কেজি,আধা কেজি বিভিন্ন মসলা ও ৪টি করে কম্বল বিতরন করা হয়।

এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান শিশির, উপজেলার নির্বাহী অফিসার নাজমুল হাসান, জেলা ত্রান ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আকতার জাহান সাথী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইঞ্জি. মোহাম্মদ আশেকুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান সহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, গত ১৯ জানুয়ারি কচুয়ার কাদলা ইউনিয়নের দোঘর গ্রামে মুন্সি বাড়ীতে গ্যাস সিলিন্ডার হতে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়ে ১১টি বসতঘর পুড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ইঞ্জি. মোহাম্মদ আশেকুর রহমান বলেন, গত বৃহস্পতিবার দোঘর গ্রামে অগ্নিকান্ডে ১১টি বসতঘর পুড়ে যায়। খবর পেয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশনায় তাৎক্ষনিক গিয়ে তাদের খাদ্য সহায়তা ও কম্বল প্রদান করা হয়। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের নির্দেশক্রমে ২৪ ঘন্টার মধ্যে বসতঘর নির্মানে ক্ষতিগ্রস্থদের ঢেউটিন প্রদান করা হয়। এভাবে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুল হাসান বলেন, অগ্নিকান্ডের ঘটনা শুনে ওইদিন রাতে ছুটে যাই। ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগিতার আশ^াস দেই। এমন মর্মান্তিক ঘটনায় খুবই দু:খজনক। তবে ক্ষতিগ্রস্থদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রান সহায়তা,কম্বল বিতরন ও ঢেউটিন প্রদান করা হয়েছে এবং সার্বিক ভাবে তাদের খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। বর্তমান সরকার অসহায় ও ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন।

শেয়ার করুন: