চাঁদপুর প্রেসক্লাবের নেতৃত্ব আহসান – শোভন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ২০২২ সালের বার্ষিক সাধারণ সভা ৩০ ডিসেম্বর শুক্রবার প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাবের সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন। প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌসের সঞ্চালনায় সভার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সভায় চাঁদপুর প্রেসক্লাবের ২০২৩ সালের কার্যকরী পরিষদ অনুমোদন করা হয়। সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক আল-ইমরান শোভনসহ ৩৯ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়। এছাড়া উপদেষ্টা পরিষদ ও বিভিন্ন উপ-কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।

কমিটির অন্য সদস্যরা হচ্ছেন : সিনিয়র সহ-সভাপতি রহিম বাদশা, সহ-সভাপতি সোহেল রুশদী, শাহাদাত হোসেন শান্ত ও রোকনুজ্জামান রোকন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান সুমন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন লিটন, মোরশেদ আলম ও শওকত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক ইব্রাহিম রনি, এম এ লতিফ, চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম ও কাদের পলাশ, কোষাধ্যক্ষ তালহা জুবায়ের, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক একে আজাদ, সাহিত্য, প্রকাশনা ও লাইব্রেরি সম্পাদক হাসান মাহমুদ, ক্রীড়া সম্পাদক এমআর ইসলাম বাবু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবদুল ওয়াদুদ বেপারী (ওয়াদুদ রানা), সমাজকল্যাণ সম্পাদক শরীফ মোঃ আশ্রাফুল হক, আপ্যায়ন ও বিনোদন সম্পাদক আশরাফুল আলম, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক মুনাওয়ার কানন।
নির্বাহী সদস্য যথাক্রমে : কাজী শাহাদাত, অধ্যক্ষ জালাল চৌধুরী, শহীদ পাটোয়ারী, বিএম হান্নান, শরীফ চৌধুরী, ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, গিয়াসউদ্দিন মিলন, আলহাজ ওচমান গনি পাটওয়ারী, মির্জা জাকির, লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর, রিয়াদ ফেরদৌস, মুনির চৌধুরী, ওমর পাটওয়ারী, আলম পলাশ, ফারুক আহমেদ, আবদুস সালাম আজাদ জুয়েল ও মোঃ মিজানুর রহমান লিটন।
সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন প্রেসক্লাব সদস্য হাসান মাহমুদ। গীতা পাঠ করেন প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর। এরপর প্রেসক্লাবের প্রয়াত নেতৃবৃন্দ এবং প্রেসক্লাব সদস্যদের মধ্যে যাদের বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজন মারা গেছেন তাদের বিদেহী আত্মার শান্তি এবং অসুস্থদের সুস্থতা কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন প্রেসক্লাবের নবগঠিত ২০২৩ সালের কার্যকরী কমিটির সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন সভার সভাপ্রধান ও প্রেসক্লাব সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন। এরপর সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌস ২০২২ সালে বার্ষিক প্রতিবেদন তুলে ধরেন। বর্তমান পর্ষদের আয়-ব্যয়ের হিসাব উপস্থাপন করেন প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ অ্যাডঃ চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম। সাধারণ সম্পাদকের উপস্থাপিত উল্লেখিত দুটি রেজ্যুলেশন ও কার্যবিবরণীসহ বার্ষিক প্রতিবেদন এবং আয়-ব্যয়ের উপর উপস্থিত নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

এছাড়া প্রেসক্লাবের অবকাঠামো উন্নয়ন এবং সাংবাদিকদের আর্থসামাজিক উন্নয়ন বিষয়ে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সদস্য ও উন্নয়ন কমিটির চেয়ারম্যান এবং চাঁদপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গনি পাটওয়ারী। তিনি বলেন, চাঁদপুর প্রেসক্লাব আমাদের আস্থা এবং বিশ্বাসের সংগঠন। আগামী বছর দেশের গুরুত্বপূর্ণ সময়। বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ মুক্ত চিন্তার, গণতন্ত্রের দেশ। দেশটা আমাদের সকলের। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রেসক্লাব এগিয়ে যাবে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল এখন স্বপ্ন নয়, বাস্তব। প্রেসক্লাব ভবনের ৪র্থ তলা লিফট করা হবে। তিনি বলেন, নতুন কমিটির কাছে প্রত্যাশা অনেক। আশাকরি প্রেসক্লাবের উন্নয়ন এবং সাংবাদিকদের ঐক্য এই ধারা বজায় থাকবে।

সভায় সর্বসম্মতভাবে সাধারণ সম্পাদকের বার্ষিক প্রতিবেদনসহ অন্যান্য রেজ্যুলেশন ও প্রতিবেদন এবং বার্ষিক আয়-ব্যয়ের প্রতিবেদন অনুমোদন হয়।

বার্ষিক এ সাধারণ সভায় আলোচ্যসূচিতে আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক সভাপতি বিএম হান্নান, শহীদ পাটোয়ারী, শরীফ চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, সোহেল রুশদী, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শান্ত প্রমুখ।

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ জালাল চৌধুরী, ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সিনিয়র সদস্য অধ্যাপক দেলোয়ার আহমেদ, মুনীর চৌধুরীসহ কার্যকরি কমিটির সকল সদস্য এবং প্রেসক্লাবের সম্মানিত সদস্য ও আজীবন সদস্যগণ সভায় উপস্থিত ছিলেন।
সভায় ২০২৩ সালের চাঁদপুর প্রেসক্লাবের উপদেষ্টা পরিষদসহ নতুন কার্যকরি কমিটি ও বিভিন্ন উপ-কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়। এছাড়া যাদের সাধারণ সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয় তাদের নাম ঘোষণা করা হয়। সবশেষে সবাই মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেন।

শেয়ার করুন: