জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণ করছেন শেখ হাসিনা :আলাউদ্দিন বীর প্রতীক

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চাঁদপুর মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার বঙ্গবন্ধু মঞ্চে স্মৃতিচারন পরিষদের ব্যবস্থাপনায় স্মৃতিচারণ কারা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযুদ্ধা মেজর জেনারেল (অব) রাওয়ার চেয়ারম্যান আলাউদ্দীন এম এ ওয়াদুদ।

এসময় তিনি বলেন, চাঁদপুরে নামকরণ হয়েছে চাঁদ ফকিরের নামে। আজ থেকে ২৫০ বছর আগে চাঁদপুর সাব ডিভিশন হয়েছে। আমরা মাঠে প্রবেশ করার সাথে যে গানটি বেজেছে সেই গানটি হচ্ছে আমাদের প্রিয় গান।শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করছি হাজার বছরের বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যার জন্ম না হলে এ দেশ স্বাধীন হতো না। আমরা বিশ্বাস করি এ পৃথিবীতে যা হবে তা মহান সৃষ্টিকর্তা নির্দেশই হবে। বঙ্গবন্ধু রাজনীতি করেছেন শেরে বাংলাকে ফজলুক এবং মাওলানা ভাসানী সঙ্গে। তাই আমাদেরকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্মরণ করতে হয়। স্বাধীনতার জন্য যারা যে ৩০ লক্ষ শহিদ আর যে দু লক্ষ মা, বোন ইজ্জত দিয়েছে সে সব বিরঙ্গনাদেরকে স্মরণ করছি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবরের স্বপ্ন পূরণ করছেন চারবারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বর্ষাকাল ছিল।আমি মেট্রিকের ছাত্র ছিলাম। যুদ্ধে যাবার সময় চাঁদপুর লঞ্চ ঘাটে কাটিয়েছি। মশার কামর কাকে বলে সে রাতে বুঝেছি। বিকালে চলে যাই পয়াল গাছায় । রাতে সেখানে মিটিং করি। আমরা বিজয় মেলা করি আমাদের প্রজম্মকে স্বাধীনতা কি তা জানানোর জন্য। যে শিশুরা আজকে জয় বাংলা গান করেছে তাদের কে আমাদের পক্ষ থেকে এক লাখ টাকা দিয়ে যাচ্ছি। এ বিজয় মেলা বেঁচে থাকুক হাজার বছর।

মেলার চেয়ারম্যান বীর যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা এম এ ওয়াদুদের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব হারুন আল রশিদের সঞ্চালনায় প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল কামরুজ্জামান (অব) ভাইস চেয়ারম্যান রাওয়া, লেফটেন কর্নেল মোঃ শফিউল আজম, (বিজিবিএমএস) জিএম (এডমিন)রাওয়া।সভার পূর্বে বিজয় মেলার পক্ষ থেকে অতিথিদের কে ফুলের শুভেচ্ছা, ক্রেস্ট প্রদান ও উত্তোলিয় পরিয়ে দেয়া হয়।

শেয়ার করুন: