জামিনে মুক্ত সেলিম খান

মেঘনা বার্তা ডেস্ক:

চাঁদপুর সদর উপজেলার ল²ীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেলিম খান গতকাল সোমবার থেকে জামিনে মুক্ত হয়েছেন। গত রোববার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ ও জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আসাদুজ্জামান জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন।

গত বছর ১২ অক্টোবর সেলিম খানকে জ্ঞাত আয় ভহির্ভুত মামলায় কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সেলিম চেয়ারম্যান বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের চেম্বার জজ আদালতের নির্দেশক্রমে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। একই সঙ্গে জামিনের আবেদন করেন। ওই দিন বিস্তারিত শুনানি শেষে আদালত সেলিম চেয়ারম্যানকে জামিনের বিষয়টি নিষ্পত্তি না করে যেমন আছে তেমন থাকার অনুমতি দেন।

পরে ১২ অক্টোবর পূর্ণাঙ্গ শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন। ওই দিন জামিন আবেদনের ওপর পূর্ণাঙ্গ শুনানি শেষে সেলিম চেয়ারম্যানকে জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর বেশ কয়েকবার তাঁর জামিনের আবেদন নামঞ্জুর হয়।

রোববার মামলার ধার্য তারিখে আবার জামিনের আবেদন করা হয়। সেলিম খানের পক্ষে জামিন চেয়ে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট শাহিনুল ইসলাম। তিনি বলেন, আদালতে স্বেচ্ছায় এসেছিলেন সেলিম খান। তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। জামিনে পালাবেন না।

শাহিনুল ইসলাম আরও বলেন, আমার মোয়াক্কেল একটি টাকাও অবৈধভাবে অর্জন করেননি। তিনি কোনো তথ্য গোপন করেননি। তিনি নিয়মিত আয়কর দিয়ে আসছেন। তাঁর নামে সরকারি চেক ছিল কোটি কোটি টাকার। সরকার টাকা দিয়েছে তাঁর জমি অধিগ্রহণ করে। ঠিকাদারি করে সরকারি তহবিল থেকে কোটি কোটি টাকা পান। এই টাকা কীভাবে অবৈধ হয়?

আইনজীবী আরও বলেন, যে সম্পদ সেলিম খান তাঁর সম্পদ বিবরণীতে দেখিয়েছেন, তা সম্পূর্ণ বৈধ আয়ের সম্পদ। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তাদের হিসাবে গরমিল করেছে। গত ১ আগস্ট সেলিম খানের বিরুদ্ধে দুদকের সহকারী পরিচালক আতাউর রহমান বাদী হয়ে মামলা করেন।

শেয়ার করুন: