বিএনপি দেশটাকে লুটে খেয়েছে : মহীউদ্দীন খান আলমগীর

কচুয়া প্রতিনিধি ॥

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেছেন,বীর মুক্তিযোদ্ধারা জাতির গর্বিত সন্তান। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা এ দেশের স্বাধীনতা অর্জন ও লাল সবুজের মানচিত্র এনে দিয়েছেন। তাদের অবদান ভোলার মতো নয়। বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ও মর্যাদা বৃদ্ধিতে কাজ করছে, যা অন্য কোনো সরকার করেনি।

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) দুপুরে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ডিজিটাল সনদ ও স্মার্ট কার্ড বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মহীউদ্দীন খান আলমগীর আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে সারাবিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে উন্নীত করেছেন। তার এই উন্নয়নের ধারাকে নস্যাৎ করার জন্য বিএনপি বিভিন্নভাবে পাঁয়তারা করছে। বিএনপি দেশটাকে লুটে খেয়েছে। আর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে দেশের উন্নয়ন করেছে। তাই জনগণ আওয়ামী লীগ সরকারকে গ্রহণ করেছে। জনগণ আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করে দেশকে আরও এগিয়ে নেবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.নাজমুল হাসানের সভাপতিত্বে ও উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মুহাম্মদ মাহবুব-উল আলমের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহাজাহন শিশির, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুলতানা খানম,উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আইয়ুব আলী পাটওয়ারী,সাধারন সম্পাদক সোহরাব হোসেন চৌধুরী সোহাগ,চাঁদপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সহ-সভাপতি ইয়াকুব আলী মাস্টার, বীর মুক্তিযোদ্ধা কর্নেল (অব:) মো.ফজলুল হক,যুদ্ধকালীন কমান্ডার আব্দুর রশিদ পাঠান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুল মবিন, ডেপুটি কমান্ডার জাবের মিয়া,কচুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি আলমগীর তালুকদার প্রমুখ।

এসময় পৌর মেয়র নাজমুল আলম স্বপন,চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জি.একেএম আব্দুল মোতালেব,এসিল্যান্ড ইবনে আল জায়েদ হেসেন,ওসি ইব্রাহিম খলিল,কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রত্যাশী আকতার হোসেন সোহেল ভূঁইয়া,হুমায়ুন কবির মিয়াজী,কামরুন্নাহার মিয়াজী,ফয়েজ আহমেদ স্বপন,সাধারন সম্পাদক প্রত্যাশী অ্যাড. হেলাল উদ্দিন,উপজেলা স্বেচ্ছসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাচ্ছেল হোসেন খান,ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন,এম আখতার হোসাইন মজুমদার,কবির হোসেনসহ দলীয় নেতাকর্মী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন: