অপপ্রচারকারীদের ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে:জেলা প্রশাসক

চাঁদপুরে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান।

তিনি বলেন, সহজ ধর্মটা সহজভাবে মানুষের সামনে তুলে ধরতে হবে। সমাজে যারা সুবিধাভোগী তারা সুবিধাও নিবে আবার অপপ্রচার চালাবে, তাদের ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে ধরণের অপপ্রচার চালানো হয়, সেসম্পর্কেও সচেতন থাকতে হবে। যখনই এ মাধ্যমে কোন অপপ্রচার দেখবেন সাথে সাথে আমাদের ও সংশ্লিষ্টদের কাছে তা পৌঁছে দিবেন স্ক্রিনশর্ট দিয়ে। দুষ্কৃতকারীরা সবসময়ই সুযোগ খুঁজে। তাদের সম্পর্কে সচেতন থাকতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, যেহেতু আমাদের দেশে জনগণের সংখ্যার মধ্যে মুসলিমদের সংখ্যা বেশি সেহেতু আমাদের মুসলিমদের ভূমিকাটা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ। একটা দল রয়েছে যারা ধর্মের নামে অপপ্রচার করে। তাদেরকে রুখতে হবে। সঠিক যে ম্যাসেজটা রয়েছে তা সমাজের সর্বস্তরে পৌঁছে দিতে হবে৷ সকল ধর্মের মানুষ মিলে একটি সুন্দর সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে।

জেলা প্রশাসক বলেন, এর আগে শারদীয় দুর্গাপূজার প্রস্তুতি সভায় সিসিটিভি সংযোগের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে৷ তাই এই সিদ্ধান্তটা পালন করতে হবে৷

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. ইমতিয়াজ হোসেন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও অর্থ) সুদীপ্ত রায়, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ সাহাদাৎ হোসেন, চাঁসক এর অধ্যক্ষ অসিত বরণ দাশ, পুরান বাজার ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদার, পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফরিদা ইলিয়াস, ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর উপ-পরিচালক মো. খলিলুর রহমান, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়, সাধারণ সম্পাদক তমাল ঘোষ, হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রনজিত রায় চৌধুরী, মসজিদে গোর এ গরীবা মসজিদের খতিবের প্রতিনিধি, চাঁদপুর ব্যাপ্টিস্ট চার্চ এর পালক ইম্মনুয়েল সরকার, ত্রিপুরা জাতির সভাপতি কর্ণরাজ ত্রিপুরা, চাঁসক এর শিক্ষার্থী ইমরান খান প্রমূখ।

এসময় সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন: