আমরা চাই সকল দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন হোক: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডাক্তার দীপু মনি বলেছেন, নির্বাচন নির্বাচনের সময়, আইন ও নিয়ম অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন যদি সঠিকভাবে হয় বাংলাদেশের মানুষ সব সময় সেখানে উৎসবমুখর পরিবেশে অংশগ্রহণ করে। কোন একটি বা দুটি দল হতে পারে সেগুলো বড় দল। তারা যদি যৌক্তিক কারণ ছাড়া নির্বাচনে অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকে, অতীতে আমরা দেখেছি, জনগণ সেই দলের মতামতকে খুব একটা প্রাধান্য দেয় না।

বুধবার সন্ধ্যায় চাঁদপুর সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, অতীতে কয়েকটি বড় নির্বাচনে আমরা দেখেছি জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে। একটি- দুইটি বড় দল অংশ নেয়নিন তবে ভালো নির্বাচন হয়েছে। আগামী নির্বাচনে আমরা আশা করি সকল দল যারা নির্বাচন করার যোগ্য তারা অংশগ্রহণ করবে এবং ভালো নির্বাচন হবে। নির্বাচনের সকল ব্যবস্থা থাকার পরেও যদি কোন দল না আসে সেটি তাদের রাজনৈতিক অধিকার। তবে আমরা চাই সকলের অংশগ্রহণে নির্বাচন হোক । কিন্তু কেউ যদি শুধুমাত্র নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে তাহলে তাদেরকে তো ধরে বেঁধে নিয়ে আসার কোন সুযোগ নেই।

তিনি আরও বলেন, নিবার্চনের ব্যবস্থাগুলো করবে নির্বাচন কমিশন ।নির্বাচন কমিশন যে সিধান্ত নিবে সেটা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে একটি অবাধ সুস্থ্য নির্বাচন নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য যা যা প্রয়োজন হবে সেই সহযোগিতা করবে সরকার। কমিশন যেখানে সিধান্ত নিবে ইভিএম ব্যবহারের সেখানে ইভিএম ব্যবহার হবে। নিবার্চন কমিশন সকল দলের সঙ্গে আলোচনা করছে। সকল দল একেভারে এক হতে পাবরে কোন একটা বিষয়ে এটি বাংলাদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে তাতে একেভারে সম্ভব হবে বলে মনে হয় না । কারণ কিছু কিছু রাজনৈতিক দল আছে যারা বিরোধীতা করবেন বলেই বিরোধীতা করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান,পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ইমতিয়াজ হোসেন,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহিউদ্দিন,চাঁদপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ আবদুর রশিদসহ আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন: