ইকরাম চৌধুরীর ১ম মৃত্যুবার্ষিকীতে দোয়া অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥

দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি সাংবাদিক নেতা ইকরাম চৌধুরীর ১ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে।তাঁর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ৮ আগস্ট রোববার চাঁদপুর সরকারি কলেজ মসজিদে বাদ আছর স্বাস্থবিধি মেনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চাঁদপুর প্রেসক্লাব ও দৈনিক চাঁদপুর দর্পণ এর যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত দোয়া অনুষ্ঠানে মোনাজাতের পূর্বে সংক্ষিপ্ত স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী।

তিনি বলেন, ইকরাম চৌধুরী ছিলেন সাংবাদিকদের একজন অভিভাবক। তিনি অত্যান্ত সৎ ও নিষ্ঠার সাথে সাংবাদিকতার দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি আমার সাংবাদিকতার হাতে খড়ি। আমার ওস্তাদজী। তার কাছেই শিখেছি কিভাবে সাংবাদিকতা করতে হয়। শুধু আমি নয়, চাঁদপুরের অনেক প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিক তার হাতে গড়া। আমি তার রুহের মাগফিরাত কামনা করছি।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত,প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা, দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক শরীফ চৌধুরী, দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের নির্বাহী সম্পাদক ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ জালাল চৌধুরী, চাঁদপুর পৌরসভার সচিব আবুল কালাম ভূঁইয়া,মরহুমের বেয়াই হাফেজ তোহা মিয়া।

প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত বলেন, ইকরাম চৌধুরী নিজেকে কখনো গুরুত্ব না দিলেও সাংবাদিকতাকে যথেষ্ট পরিমান গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি সাংবাদিকতা করতে গিয়ে নিজের শরীরের দিকে না তাকিয়ে না খেয়ে যে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। নিউজের জন্য এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুঁটে বেড়িয়েছেন। পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত না করে প্রতিষ্ঠিত করেছেন নিজেকে একজন নির্ভীক সাংবাদিক হিসেবে। সরকারি চাকরী ছেড়ে দিয়ে সাংবাদিকের নেশায় তিনি বের করেছেন দৈনিক চাঁদপুর দর্পণ। আমি তার বয়সে বড় কিন্তু সাংবাদিকতায় সে আমার বড়। আমি তাকে শ্রদ্ধা করি। তার এই অকালে চলে যাওয়া আমাদের জন্য খুব কষ্টকর। আমি তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।

প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা তার বক্তব্যে বলেন, ইকরাম চৌধুরী একজন সৎ ও নির্ভীক সাংবাদিক ছিলেন। আমি তার আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক শরীফ চৌধুরী বলেন,সাংবাদিকতা তার কাছ থেকে শিখেছি। কিভাবে পত্রিকা সম্পাদনা করতে হয় তা আমাকে হাতে ধরে শিখিয়েছেন। আজকের উপস্থিত সকলের কাছে তাঁর জন্য দোয়া প্রার্থণা করছি। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন।
দৈনিক চাঁদপুর দর্পণের সমন্বয়কারী মুনির চৌধুরীর পরিচালনায় এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শহীদ পাটওয়ারী,বিএম হান্নান,বর্তমান সিনিয়র সহ-সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন, সহ-সভাপতি সোহেল রুশদী,এ এইচএম আহসানুল্লাহ, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা জাকির,চাঁদপুর টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আল ইমরান শোভন,দৈনিক চাঁদপুর সংবাদ এর সম্পাদক আবদুর রহমান,দৈনিক চাঁদপুর দিগন্তের সম্পাদক অ্যাড.শাহজাহান মিয়া, ইলশ্পোড় এর প্রধান সম্পাদক মাহবুবুর রহমান সুমন, দৈনিক সুদীপ্ত চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এম আর ইসলাম বাবু, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জহিরুল ইসলাম,জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাড সলিমুল্লা সেলিম, চাঁদপুর জেলা গণফোরামের সভাপতি অ্যাড. সেলিম আকবর, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক আবু নাছের বাচ্চু পাটওয়ারী, চাঁদপুরস্থ ফরিদগঞ্জ ফাউন্ডেশনের সভাপতি সাইয়েদুল ইসলাম বাবু, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিয়াজী, জেলা ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কে এম মাসুদ, নিরাপদ সড়ক চাই চাঁদপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিউদ্দীন রাসেল, সুধীজন অ্যাড. মোস্তফা কামাল প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে মোনাজাত পরিচালনা করেন চাঁদপুর সরকারি কলেজ মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা নিজামুল হক।

শেয়ার করুন: