এসএসসি ১৯ জুন, এইচএসসি ২২ আগস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চলতি বছরের ১৯ জুন এসএসসি এবং ২২ আগস্ট এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে ঢাকা শিক্ষাবোর্ড। মঙ্গলবার (১ মার্চ) বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয় এ বিজ্ঞপ্তি। এতে সই করেন বোর্ডের চেয়ারম্যান (রুটিন দায়িত্ব) তপন কুমার সরকার।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১৩ এপ্রিল থেকে রেজিস্ট্রেশনধারী এসএসসি শিক্ষার্থীরা ঘরে বসে অনলাইনে পরীক্ষার ফরম পূরণ করবে। প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা শুরু হতে পারে ১৯ মে থেকে।

অপরদিকে এইচএসসি শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফরম পূরণের সম্ভাব্য তারিখ ৮ জুন। এদের প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা শুরু হতে পারে ১৪ জুলাই থেকে।

যেসব বিষয়ে পরীক্ষা হবে না

চলতি বছর এসএসসি ও এইচএসসিতে সব বিষয়ে পরীক্ষা হচ্ছে না। এর মধ্যে এসএসসিতে চারটি- ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং বিজ্ঞান বাদ দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে অন্যান্য বিষয়ে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

এইচএসসিতে একটি বিষয়- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বাদ দেওয়া হয়েছে। এই বিষয়গুলোতে গতবারের মতো এবারও সাবজেক্ট ম্যাপিং করে নম্বর দেওয়া হবে। অর্থাৎ শিক্ষার্থীদের বাংলা, ইংরেজি গ্রুপ ভিত্তিক নৈর্বাচনিক তিন বিষয় ও ঐচ্ছিক একটি বিষয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

স্বাভাবিক সময়ে এসএসসিতে বিভিন্ন বিষয়ে ১২টি পত্রে ও এইচএসসিতে বিভিন্ন বিষয়ে ১৩টি পত্রে পরীক্ষা হয়।

মান বণ্টন যেভাবে

এসএসসিতে ইংরেজি প্রথম পত্রে ৫০ নম্বর, ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রে ৫০ নম্বর আর ব্যাবহারিক আছে এমন বিষয়ে ৪৫ নম্বরে পরীক্ষা হবে।

এর মধ্যে রচনামূলক ৩০ নম্বর আর এমসিকিউতে ১৫ নম্বর থাকবে। এছাড়া যেসব বিষয়ে ব্যবহারিক শিক্ষা নেই, সেসব বিষয়ে ৫৫ নম্বরের (রচনামূলক ৪০, এমসিকিউ ১৫) পরীক্ষা হবে।

এইচএসসিতেও ইংরেজি প্রথম পত্রে ৫০, ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রে ৫০ ও বাংলা দ্বিতীয় পত্রে ৫০ নম্বরের পরীক্ষা হবে। এছাড়া ব্যবহারিক শিক্ষা আছে এমন বিষয়ে ৪৫ নম্বরে পরীক্ষা হবে। এর মধ্যে রচনামূলক ৩০ নম্বর আর এমসিকিউতে ১৫ নম্বর থাকবে। যেসব বিষয়ে ব্যবহারিক শিক্ষা নেই, সেসব বিষয়ে ৫৫ নম্বরের (রচনামূলক ৪০, এমসিকিউ ১৫) পরীক্ষা হবে।

পরীক্ষার সময়

এসএসসি ও এইচএসসি উভয় পরীক্ষায় সময় থাকবে দুই ঘণ্টা। এর মধ্যে রচনামূলকের জন্য এক ঘণ্টা ২০ মিনিট আর এমসিকিউর জন্য থাকবে ২০ মিনিট।

শেয়ার করুন: