এ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলের উদ্যোগে করোনা মোকাবেলায় চাঁদপুরে কিউআরসি সেবা চালু

আনোয়ারুল হক:

চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলের উদ্যোগে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় চাঁদপুর পৌর এলাকায় চালু হয়েছে কিউআরসি (Quick Response during Crisis) সেবা।

২৬ মার্চ থেকেই চালু হয়েছে এই কিউআরএস সেবা। এ সেবার মাধ্যমে চাঁদপুর শহরসহ জেলার মানুষের কাছে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দিতে ২৪ ঘন্টাই ডাক্তারদের পরামর্শ গ্রহণের জন্য হেল্প লাইন করা হয়। চাঁদপুর পৌর এলাকার মধ্যে অবস্থিত যারা ঔষধ সংগ্রহ করতে পারছেন না তাদেরকে বিনামূল্যে ঔষধ সরাবরাহের ব্যবস্থাসহ জরুরী অসুস্থ্য রোগীদের পরিবহন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

কিউআরসি সেবা চালু হওয়ার খবর শোনার সাথে সাথেই অনেকেই কিউআরসি হেল্প লাইনে কল দিয়ে ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করছে এবং জরুরী ঔষধ সরবরাহ ও রোগী পরিবহনের জন্য দেয়া মোবাইল নাম্বারে কল দিয়ে সেবা গ্রহণ করছেন।

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে গত ২৪ মার্চ থেকে থেকে সারা বাংলাদেশে সেনা মোতায়েন করা হয় এবং চাঁদপুর জেলার নিরাপত্তা জোরদার ও মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান স্বাক্ষরিত চিঠিতে চাঁদপুর জেলায় সকল ধরণের সভা-সমাবেশ, সেমিনার, সামাজিক অনুষ্ঠান, ধর্মীয় সমাবেশ, সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড, চায়ের স্টল, হোটেল রেস্তোরাঁয় আড্ডাসহ সকল প্রচারের গণজমায়েত পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়। কাঁচা বাজার, খাবার ও ঔষধের দোকান, হাসপাতাল এবং জরুরি সেবাসমূহ চালু থাকবে। খাদ্যদ্রব্য, ঔষধ, চিকিৎসা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ব্যতীত কেউ নিজ গৃহ থেকে বের না হওয়ারও অনুরোধ জানানো হয়। জরুরি প্রয়োজন ব্যতীত সকল প্রকার অটো এবং সিএনজি চলাচল বন্ধ থাকবে বলেও জানা যায়।

এই জরুরি অবস্থার কথা বিবেচনা করে চাঁদপুর পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েলের উদ্যোগে কিউআরসি সেবা চালু করা হয়। এরকম একটি মহতী উদ্যোগের কারণে সর্বমহলে প্রশংসীত হন তিনি।

এ বিষয়ে এ্যাড. জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাজারো মানুষ মৃত্য বরণ করেছে। বাংলাদেশেও ৫ জন মৃত্যু বরণ করেছে। বর্তমান সরকার এ পরিস্থিতি মোকাবেলায় সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। বর্তমানে সারা বাংলাদেশের মানুষই করোনা নিয়ে এক ধরণের আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন। সরকারি নিষেধাজ্ঞার কারণে শহরে যানচলাচল, দোকানপাট, সরকারি-বেসরকারি অফিস, স্কুল-কলেজ বন্ধ রয়েছে। এ পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমাদের কিউআরসি টিম আপনাদের সেবায় সার্বক্ষণিক কাজ করে যাবে। আমাদের মেডিকেল টিম আপনাদেরকে ২৪ ঘন্টাই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আপনার শারীরিক অবস্থার উপর নির্ভর করে ঔষধ বা হাসপাতালে যোগাযোগ করতে বলবেন। দুর্গম এলাকা বা কেউ ঔষধ নেয়ার মতো অবস্থা না থাকলে বিনামূল্যে ঔষধ পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। জরুরী রোগীদের ক্ষেত্রে হাসপাতালে পরিবহনের ব্যবস্থা এবং নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য বিনা পারিশ্রমিকে মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া হবে। আশা করি মানুষ এতে উপকৃত হবে। আপনারা বাসায় থাকুন, নিরাপদ থাকুন, আপনাদের প্রয়োজনে আমরা পৌঁছে যাবো।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *