কচুয়ায় গৃহবধুর মৃত্যুতে স্বামী আটক

কচুয়া প্রতিবেদক ॥

কচুয়ায় নুসরাত ফাতেমা নিপু (৩২) নামের এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সে উপজেলার গোহট উত্তর ইউনিয়নের হারিচাইল গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী মো. মহিন উদ্দিন ওরফে মহিনের দ্বিতীয় স্ত্রী। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা জেলার বরুড়া উপজেলার পাঠানপাড়া।

সোমবার দুপুরে কচুয়া থানা পুলিশ নুসরাত ফাতেমা নিপুর লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুরের মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় স্বামী মহিন উদ্দিন মহিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নিপুর বড় ভাই শাহেদুল হাসান ও পিতা মাহবুবুল ইসলাম জানান, গত ৩ সেপ্টেম্বর পারিবারিকভাবে নুসরাত ফাতেমা নিপুর সাথে হারিচাইল গ্রামের মো. মহিন উদ্দিন মহিনের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর বিভিন্ন সময় তাকে শারিরিক নির্যাতন করতো বলে সে আমাদেরকে মুঠোফোনে জানাতো। ঘটনার দিন সোমবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে মহিন তার মুঠোফোনে আমাদেরকে জানায়, নিপু আত্মহত্যা করেছে।

পিতা মাহবুবুল আলম জানান, আমার মেয়ে আত্মহত্যা করতে পারে না। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহত নিপুর বড় ভাই শাহেদুল হাসান বাদী হয়ে নিপুর স্বামী মহিন উদ্দীন ও তার প্রথম স্ত্রী মরিয়ম বেগমকেসহ অজ্ঞাতনামা ২-৩ জনকে বিবাদী করে কচুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। এদিকে তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি সে আত্মহত্যা করেছে এ নিয়ে জনমনে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো. মহিউদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে রাত সাড়ে ১২টার পর নুসরাত ফাতেমা নিপু আত্মহত্যা করেছে। নিপুর বেডরুমের দরজা ভেঙ্গে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুরের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং তার স্বামী মো. মহিন উদ্দিন মহিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শেয়ার করুন: