কচুয়ায় দুই মামলায় পুরুষ শুন্য গ্রাম!

কচুয়া উপজেলার খিলমেহের গ্রামে বাড়ির চলার পথ নিয়ে দীর্ঘদিনের দ্বন্ধের ঘটনায় সোমবার রাতে পুলিশের উপস্থিতিতে পুলিশসহ অন্তত ৮ জনের উপর হামলার ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে হামলার শিকার আশারকোটা গ্রামের অধিবাসী মো.লোকমান হোসেন ও কচুয়া থানার এএসআই দিদারুল আলম বাদী হয়ে পৃথক ভাবে দুটি মামলা দায়ের করেন।

দুটি মামলায় ৩৫জনের নাম উল্লেখ ও ৩০/৪০জনকে করে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। এ দুই মামলার গ্রেফতার আতংকের ভয়ে খিলমেহের গ্রামের ৩/৪ বাড়ির প্রায় পুরুষ শুন্য হয়ে পড়েছে।

উল্লেখ্য যে, কচুয়ার খিলমেহের গ্রামে তিনটি বাড়ির যাতায়াতের পথ বন্ধ করাকে কেন্দ্র করে প্রবাসী ফারুক হোসেন ও জাহাঙ্গীর আলমের পরিবারকে বাশঁ দিয়ে বেড়া দিয়ে গৃহবন্ধী করে রাখে প্রতিবেশীরা।

পরে প্রবাসী ফারুক হোসেনের ভাই লোকমান হোসেন কচুয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে সেমাবার রাতে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসলে উভয় পক্ষের তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে ৮জন আহত হয়।

এসময় পুলিশ বাধা দিলে দুই পুলিশ সদস্যদের উপর হামলা করা হয়।

কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন বলেন, পুলিশের পেশাগত কাজে বাধা ও মারধরের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। মামলার আসামিদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চলছে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *