কোরবানির পশুর হাট পরিদর্শনে এসপি মিলন মাহমুদ

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) মিলন মাহমুদ পিপিএম (বার) বলেছেন, চাঁদপুর জেলায় ২২৫ কোরবারিন পশুর হাট বসেছে। এসব বাজাগুলোতে শৃঙ্খলা রক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য কাজ করছে পুলিশ। জাল টাকা আমদানি করা হচ্ছে কিনা সনাক্ত করার জন্য ব্যবস্থা রেখেছে পুলিশ। সঠিকভাবে হাসিল আদায় করছে কিনা তাও আমরা খতিয়ে দেখছি। পশুর হাট যতদিন থাকবে, আমাদের পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত থাকবে।

রোববার (১৮ জুলাই) বিকেলে তিনি বাবুরহাট ও বাগাদী কোরবানির পশুর হাট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন।

পরিদর্শনকালে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন)সুদীপ্ত রায়,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহিউদ্দিন,চাঁদপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত)সুজন কান্তি বড়ুয়া উপস্থিত ছিলেন।

বাগাদী চৌরাস্তা পশুর হাট পরিদর্শনকালে পুলিশ সুপার জেলার ও জেলার বাহির থেকে আসা গরু ব্যবসায়ী এবং মালিকদের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি গরুর বাজার দর এবং সুবিধা ও অসুবিধা সম্পর্কে খোঁজ খবর নেন। এছাড়াও তিনি সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন।

পরিদর্শনকালে বাগাদী চৌরাস্তা কোরবানির পশুর হাটের ইজারাদার জাকির হোসেন খানসহ ইজারাদারের সহযোগী লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন: