ঘরে গৃহবধূর লাশ, শাশুড়ি গ্রেপ্তার

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গৃহবধূর বাঁ হাতের রগ কাটা ছিল। এ ঘটনায় পুলিশ গৃহবধূর শাশুড়িকে গ্রেপ্তার করেছে। গতকাল রোববার বিকেলে উপজেলার ৫ নম্বর পূর্ব গুপ্টি ইউনিয়নের ঘনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূর নাম সালমা বেগম (২২)। তিনি প্রবাসী মো. মাহফুজের স্ত্রী। সালমার পরিবারের অভিযোগ, সালমার হাতের রগ কেটে হত্যা করে ঘরের ভেতর আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে দিয়েছেন শাশুড়ি। তবে শাশুড়ি আলিমুন্নেছার (৫৫) দাবি, সালমা আত্মহত্যা করেছেন।

ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিব উদ্দিন জানান, গতকাল বিকেলে গৃহবধূর লাশ বসতঘর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। গৃহবধূর বাঁ হাতের রগ কাটা ছিল এবং পা মাটির সঙ্গে লেগে ছিল।

এদিকে সালমার বাবা মহসিন মিয়া জানান, তাঁর মেয়ে শ্বশুরবাড়ির নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তাঁরাই তাঁকে মেরে ঝুলিয়ে রেখেছেন। এই ঘটনায় গতকাল রাতে মহসিন মিয়া বাদী হয়ে সালমার স্বামী মো.মাহফুজ, শাশুড়ি আলিমুন্নেছাসহ অজ্ঞাতনামা আরও দুই থেকে তিনজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। ওসি জানান, আজ সোমবার সালমার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চাঁদপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। গ্রেপ্তার শাশুড়িকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Daily Meghna Barta - দৈনিক মেঘনা বার্তা- চাঁদপুর We would like to show you notifications for the latest news and updates.
Dismiss
Allow Notifications