ঘাতকরা হত্যাযজ্ঞের মাধ্যমে দেশকে হত্যা করতে চেয়েছিল : ডাঃ দীপু মনি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহিদদের স্মরণে ২১ আগস্ট শুক্রবার বিকেলে চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে পৌর আওয়ামীলীগের আয়োজনে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর-৩ নির্বাচনী আসনের সাংসদ শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এম পি।

এ সময় টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্যে তিনি বলেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ও তার সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মজিব সহ তার স্বপরিবারকে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নাম্বার বাড়িতে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। ঘাতকরা সেদিন এই হত্যার মাধ্যমে চেয়েছিলো বাংলাদেশকে হত্যা করতে। যাতে করে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে মাথা উচু করে দাঁড়াতে না পারে। কিন্তু তাদের সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারেননি। আল্লাহর অশেষ রহমতে জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে থাকার কারনে তাদের সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে দেননি।

জননেত্রী শেখ হাসিনা বিরোধী দলে থাকালীন সময়ে যখন সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ে সংগ্রাম করেছিলেন, তখন ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ওইসব ষড়যন্ত্রকারীরা ঠিক একই কায়দায় পল্টন ময়দানের জনসভায় গ্রেনেড হামলা চালিয়েছেন। এতে করে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেত্রী আইভি রহমান ও কেন্দ্রীয় সেচ্ছাসেবক লীগের চাঁদপুর হাইমচরের কৃতি সন্তান কুদ্দুছ পাটওয়ারী সহ আমাদের দলীয় অনেক নেতা কর্মীরা নিহত হন। সেদিন অনেকে মারা গেলেও অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে ফিরেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। ১৫ ও ২১ আগষ্টে হত্যাযজ্ঞের মাধ্যমে তারা চেয়েছিলো আওয়ামীলীগকে ধংস করতে। কিন্তু তারা সফল হতে পারেননি। আজ জননেত্রী শেখ হাসিনা শত প্রতিকূলতা পেরিয়ে বাংলাদেশকে উন্নতির ধারায় এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। এই করোনাকালীন সময়েও তিনি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

চাঁদপুর পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাধা গোবিন্দ ঘোফের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বাবুল এবং প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক এমরান হোসেন সেলিমের যৌথ পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সন্তোষ দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, অ্যাড. মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, সহ প্রচার সম্পাদক অ্যাডঃ রনজিত রায় চৌধুরী, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক অজয় কুমার ভৌমিক, সদস্য ও বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সভাপতি অ্যাডভোকেট বদিউজ্জামান কিরন, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদ আহমেদ মিঠু, সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন মন্টু দেওয়ান, অ্যাডভোকেট সাইফুদ্দিন বাবু, মোজাাহের হোসেন টিপু, জেলা শ্রমিক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব মাহবুবুর রহমান, জেলা আওয়ামী মহিলা যুবলীগের সভাপতি ও পৌর মহিলা কাউন্সিলর ফরিদা ইলিয়াছ

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *