চক্ষু ভাল রাখতে সময়মত চিকিৎসা করতে হবে : গিয়াসউদ্দিন মিলন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুর সদর উপজেলার নানুপুর চৌরাস্তায় অবস্থিত চাঁদপুরজমিন হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে চক্ষু চিকিৎসা শিবির অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টায় প্রতিটি রোগীকে মাস্ক নিশ্চিত করে চক্ষু চিকিৎসা শিবির পরিচালনা করেন জাতীয় অন্ধ কল্যাণ সমিতি কুমিল্লা। চক্ষু চিকিৎসা শিবির আনুষ্ঠানকিভাবে উদ্বোধন করেন চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি ও দৈনিক মেঘনাবার্তার সম্পাদক ও প্রকাশক মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিলন।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, মানুষের শরীরের মূল্যবান একটি অঙ্গের নাম চোখ। যার চোখ নেই সে তার মূল্য বুঝেন। নিজের চোখ নিজেকে যত্ন নিতে হবে। তা আবার হতে হবে সময় উপযোগী। আপনারা নিদিষ্ট সময়ে চোখের চিকিৎসা করবেন। তাহলে চক্ষু ভাল থাকবে।

তিনি বলেন, রোকনুজ্জামান রোকন এই হাসপাতালটি দেওয়ার কারনে এই অঞ্চলের মানুষ সেবা পাচ্ছেন। তাই আপনারা সবসময় তার পাশে থেকে সেবামূলক কাজ করার জন্য উৎসাহ দিবেন।

চাঁদপুরজমিন হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. রোকনুজ্জামান রোকন এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও বাগাদী ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব ফারুক আহমেদ কাকন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর ট্রাফিক ইন্সপেক্টর টিআই সাইফুল ইসলাম, বিশিষ্ট্য ব্যবসায়ী মোঃ খোরশেদ আলম বাবুল মোল্লা, বাংলাদেশ জাতীয় অন্ধ কল্যাণ সমিতি কুমিল্লার প্রোগ্রাম অফিসার মো. দেলওয়ার হোসেন, দৈনিক চাঁদপুরজমিন পত্রিকার প্রধান সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম অনিক। চক্ষু চিকিৎসা শিবিরে ৪জন চক্ষু বিশেষজ্ঞ প্রায় ৫ শতাধিক রোগীকে চিকিৎসা সেবা ও ৮০জন রোগীকে অপরেশনের জন্য ব্যবস্থা করা হয়। প্রতি ইংরেজী মাসের প্রথম রোববার এ চক্ষু চিকিৎসা শিবির অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের সতর্কতা অবলম্বনের কারনে বাংলাদেশ জাতীয় অন্ধ কল্যাণ সমিতি কুমিল্লা ও চক্ষু হাসপাতালের চক্ষু চিকিৎসা শিবির কর্মসূচি গত মার্চ মাস থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেন কর্তৃপক্ষ। গত ২০ আগস্ট চাঁদপুরজমিন হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের চেয়ারম্যান মো. রোকনুজ্জামান রোকন বরাবর সমিতির সাধারন সম্পাদক ডাঃ এ কে এম আব্দুস সেলিম প্রতি ইংরেজী মাসের প্রথম রোববার প্রতিষ্ঠানে চলমান চক্ষু স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি শুরু করার জন্য একটি পত্র প্রেরণ করেন। সেই পত্রের প্রেক্ষিতে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ৬ সেপ্টেম্বর রোববার থেকে চক্ষু স্বাস্থ্যসেবা কর্মসূচি শুরু করার অনুমতি দেন হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোঃ রোকনুজ্জামান রোকন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *