চাঁদপুরে আইসোলেশনে ৩ জনসহ ৯ জনের মৃত্যু

আনোয়ারুল হক:

জ্বর, শ্বাসকষ্টসহ করোনা উপসর্গে চাঁদপুরে আইসোলেশনে ৩জনসহ জেলায় ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে চাঁদপুর সদরে ৪জন, হাজীগঞ্জে ৩জন, ফরিদগঞ্জে ১জন এবং মতলব উত্তরে ১ জন। বৃহস্পতিবার রাত ১১টা থেকে শুক্রবার বেলা ১২টা পর্যন্ত এই ৯জনের মৃত্যু হয়।

শুক্রবার সকালে চাঁদপুর ২৫০শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে মুক্তিযোদ্ধাসহ ৩ জনের মৃত্যু হয়। মৃতরা হলেন, ফরিদগঞ্জ উপজেলার দিবাকর (৫০), চাঁদপুর শহরের দক্ষিণ গুনরাজদী এলাকার মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন ( ৬৭) ও শহরের গুয়াখোলার বাসিন্দা জয়দল (৬৩) ।

চাঁদপুর সদর হাসপাতাল সূত্র জানায়, সবাই করোনার উপসর্গ নিয়ে আইসোলেশনে ভর্তি হয়েছিল। তাদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন (৬৭) বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১ টায় ভর্তি হন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় মারা যান।
গুয়াখোলার জয়দল (৬৩) বৃহস্পতিবার রাত ১২টায় ভর্তি হন। শুক্রবার সকাল ৯ টায় মারা যান। ফরিদগঞ্জের দিবাকর (৭৩) গত ৮ জুন ভর্তি হন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় মারা যান।

চাঁদপুর সদরে মৃতরা হলেন মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন, জয় দল, মোফাজ্জল হোসেন ও শহীদ কাজী। এরমধ্যে রুহুল আমিন ও জয়দল আইসোলেশন, বৃহস্পতিবার রাতে চাঁদপুর পৌরসভার ১৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোঃ মোফাজ্জল হোসেন পাটওয়ারী (৮০)করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

চাঁদপুর সদর উপজেলার ৭ নং তরপুরচন্ডী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ কাজী ঢাকার একটি হাসপাতালে শুক্রবার বেলা ১১টায় মারা যান। তিনি বার্ধক্যজনিত সমস্যাসহ করোনার উপসর্গ নিয়ে ঢাকা গ্রীন লাইফ হসপিটালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। বিকেল ৫টায় আলী দাখিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে নামাজে জানাজা শেষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাকে দাফন করা হয়।

হাজীগঞ্জ উপজেলায় মৃত ৩জন হলেন আব্দুল মোমেন মোঃ আবুল বাশার এবং মরিয়ম বেগম। উপজেলার ৫নং সদর ইউনিয়নের বাউড়া সর্দার বাড়ীর বাসিন্দা আব্দুল মোমেন(৫৮) বৃহস্পতিবার রাত ১১টায় আলীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান। শুক্রবার সকাল ৮ টায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

হাজীগঞ্জে গত ৫ জুন শুক্রবার করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া বিএনপি নেতা আবদুল আউয়ালের বাবা মো. আবুল বাসার (৭৫) আজ শুক্রবার সকাল সোয়া ৯টায় মারা গেছেন। ছেলে আবদুল আউয়ালের মৃত্যুর পর তার বাবার জ্বর, কাশি ও শ্বাস কষ্ট দেখা দেয়।

হাজীগঞ্জ উপজেলার ৪নং কালচো দক্ষিণ ইউনিয়নের মাড়ামুড়া গ্রামের মরিয়ম বেগম(৫৫) নামে এক গৃহিণী করোনা উপসর্গে শুক্রবার দুপুর ১২ টায় মারা যান । তিনি ওই বাড়ির মৃত মোহাম্মদ উল্লাহ স্ত্রী । ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা স্বপন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে মরহুমাকে দাফন করা হবে।

মতলব উত্তর উপজেলার ফরাজীকান্দি ইউনিয়নের কাতারি কান্দি গ্রামে করোনা উপসর্গে মো. জামান নামে এক বালকের মৃত্যু হয়েছে। সে ওই গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে। শুক্রবার সকাল ৭টায় নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয় । ওই বালক বৃহস্পতিবার ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে আসে। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ মৃতের নমুনা সংগ্রহ করেছে।

চাঁদপুর সিভিল সার্জন মো. সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনার উপসর্গ নিয়ে জেলায় মোট ৭১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে মৃত্যুর পর পজিটিভ প্রতিবেদন আসে ২৯ জনের।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *