চাঁদপুরে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥

“বিনা খরচে নিন আইনী সহায়তা শেখ হাসিনার সরকার দিচ্ছে এই নিশ্চয়তা” এই স্লোগানে সারাদেশের ন্যয় চাঁদপুরে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) সকালে দিবস উপলক্ষে র‌্যালী, মেলা, দিবসের তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা সভা ও ডকুড্রামা প্রদর্শন ও শ্রেষ্ঠ দুইজন প্যানেল আইনজীবীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

সকাল ৯ টায় জেলা জজ আদালত চত্বরে কবুতর ও বেলুন উত্তোলনের মাধ্যমে কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ এস এম জিয়াউর রহমান।

উদ্বোধন শেষে আদালত চত্ব্র থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়ক হয়ে বাসস্ট্যান্ড ইলিশ চত্বর ঘুর একই স্থানে এসে শেষ হয়।

এরপর চত্বরে সংস্থার আয়োজনে লিগ্যাল এইডের মেলা উদ্বোধন করেন অতিথিবৃন্দ। দিবসের তাৎপর্যন নিয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা লিগ্যাল এইড কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ এস এম জিয়াউর রহমান।

জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সহকারী জজ) মো. সাকিব হোসেন এর সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যালের বিচারক (জেলা জজ) জান্নাতুল ফেরদাউস চৌধুরী, জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিস, পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিলন মাহমুদ, চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ শামছুল ইসলাম, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ফারহানা ইয়াসমিন, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. কামাল উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা জজ আদালতের পিপি অ্যাডঃ রনজিত রায় চৌধুরী, নারী ও শিশু নিযাতন দমন টাইবুন্যালের স্পেশাল পিপি অ্যাডঃ সাইয়েদুল ইসলাম বাবু, জিপি অ্যাড. আব্দুর রহমান, শ্রেষ্ঠ প্যানেল আইনজীবী নুরুল হক কমল ও রেহেনা ইয়াসমিন কচি প্রমূখ।

বিনামূল্যে আইনী সহায়তা পাওয়া উপকারভোগী অনুভুতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন ফরিদগঞ্জের মোসাম্মৎ খাদিজা আক্তার ও চাঁদপুর সদর উপজেলার উম্মে কুমকুম ইভা।

আলোচনা শেষে জেলা লিগ্যাল এইডের শ্রেষ্ঠ প্যানেল আইনজীবী নুরুল হক কমল ও রেহেনা ইয়াসমিন কচি সম্মাননা ক্রেস্ট তুলেদেন সংস্থার চেয়ারম্যানসহ অতিথিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ (১) শাহেদুল করিম, যুগ্ম জেলা জজ (২) অরুণ চন্দ পালসহ বিচারক, আইনজীবী, অতিথিবৃন্দ।

সভাপতির বক্তব্যে জেলা ও দায়রা জজ বলেন, জাতির পিতা আমাদের এই দেশ স্বাধীন করার পরে দেশ পরিচালনার জন্য সংবিধান প্রনোয়ন করেন। যা সারাবেশে উন্নত ও শ্রেষ্ঠ সংবিধান হিসেবে স্বীকৃত। কোন নাগরিকের জন্য আইনের বাহিরে গিয়ে কাজ করা যাবে না। কিন্তু অনেক সময় মানুষের অধিকারও ক্ষুন্ন হয়। আদালতের মাধ্যমে যেন একজন ব্যাক্তির মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা হয় সে জন্য কাজ করা হচ্ছে। আর এই জন্য আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ২০০০ সালে লিগ্যাল এইড আইন পাশ করেন এবং নানামূখী উদ্যোগ গ্রহন করেন। যারা আইনী সহায়তা নিতে আর্থিকভাবে অক্ষম তাদের আইনী অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য। ২০১৩ সালে সরকার মন্ত্রী সভার বৈঠকে আইনগত সহায়তা প্রদান আইন ২০০০ কার্যকরের তারিখ ২৮ এপ্রিলকে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস ঘোষণা করেন।

শেয়ার করুন: