চাঁদপুরে প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী উদ্যোগ সংক্রান্ত কর্মশালা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী উদ্যোগ সংক্রান্ত দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে আমাদের দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ১০টি উদ্যোগে মাধ্যমে ২০৪১ সালে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত হবে। নারী ক্ষমতায়নের দিকে নারীরা অনেকদূরর এগিয়ে গেছে। সর্বক্ষেত্রে এখন নারীতের সম্পৃক্ততা রয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চান প্রতিটা সেক্টরে নারীরা থাকুক।

জেলা প্রশাসক বলেন, আশ্রয়ের ক্ষেত্রে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। মানুষ যখন আশ্রয় পাবে তখন আমাতের মাথাপিছু আয় আরো বাড়বে। জিবন যাত্রা মান বাড়ে। শিক্ষার ক্ষেত্রে সরকার বিভিন্ন উদ্দ্যোগ নিয়েছেন। সরকার অবহেলিতদের নিরাপত্তা বেস্টনিতে নিয়ে এসেছেন। বিভিন্নরকম সেবা পাচ্ছে সাধারণ অসহায় ও অবহেলিত মানুষসহ বিভিন্ন রোগীরাও। সরকার সকল সেক্টরের মানুষদের জন্যে চিন্তা করছেন এবং জিবনমান উন্নয়নে কাজ করছেন। প্রয়োজন আমাতের স্বদিচ্ছা ও আন্তরিকতা।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্ভাবনী সম্পর্কে ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করেন।

সহকারি কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আখতার জাহান সাথীর সঞ্চালনায় আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মো.মিলন মাহমুদ,জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান,জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব নাছির উদ্দিন আহমেদ,সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল,পৌরসভার মেয়র অ্যাড.জিল্লুর রহমান জুয়েল,প্রেসক্লাবের সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন প্রমূখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ।

শেয়ার করুন: