চাঁদপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন

চাঁদপুর-৩ (সদর-হাইমচর) আসনের সংসদ সদস্য ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি এমপি বলেছেন, একটি সময়ছিলো যখন বিভিন্ন খেলাধূলা কমে গিয়েছিলো, তখন যুব সমাজ নানান দিকে চলে গেছে। সেজন্যে আমরা মনে করি আমাদেন যুব সমাজকে, নতুন প্রজন্মকে সঠিক পথে রাখতে, শারিরীক-মানসিকভাবে সুস্থ রাখতে, তাদের প্রতিভাকে পরিপূর্ণ বিকাশের জন্যে খেলাধূলা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এধরণের টুর্নামেন্টগুলো আমাদের সেইসব সুযোগ করে দিয়েছে

মঙ্গলবার (১ জুন) সকালে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ বালক বালিকা ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২১ (অনূর্ধ্ব -১৭) ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আমরা অত্যন্ত ক্রীড়াবান্ধব, ক্রীড়ামোদি ব্যক্তিত্ব হিসেবে একজন রাষ্ট্রনায়ক পেয়েছি। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা একজন ক্রীড়ামোদী মানুষ। তাঁর পুরো পরিবারই ছিলো ক্রীড়ামোদী পরিবার। বঙ্গবন্ধুর জেষ্ঠ্য পুত্র শেখ কামালো একজন ক্রীড়ক সংগঠক ছিলেন। ক্রীড়ার দিকে এগিয়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক এবং আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ। চাঁদপুর ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু’র সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ বিপিএম (বার), প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, জেলা ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাহির হোসেন পাটোয়ারী প্রমুখ।এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. ইমতিয়াজ হোসেন, এনএসআই এর উপ-পরিচালক শাহ আরমান আহমেদ, জেলা ক্রীড়া অফিসার মো. তারিকুল ইসলাম, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশাসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ।

উদ্বোধনী খেলায় ফরিদগঞ্জ উপজেলা বালক-বালিকা দল জয় লাভ করে।২য় খেলায় চাঁদপুর পৌরসভা বালিকা দল মতলব উত্তর উপজেলা দলকে ২-০ গোলে পরাজিত করে।

চাঁদপুর জেলা প্রশাসন আয়োজিত এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও জেলা ক্রীড়া অফিস এর সহযোগিতায় এ প্রতিযোগিতায় চাঁদপুর জেলার আটটি উপজেলা ও চাঁদপুর পৌরসভা মোট নয়টি বালক-বালিকা দল অংশগ্রহণ করে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *