চাঁদপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা

চাঁদপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭) উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ মে) সকাল ১১টায় চাঁদপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এ সভার আয়োজন করা হয়।সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।

জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার নামে এ টুর্নামেন্ট হবে, কাজেই এ টুর্নামেন্ট আমাদের কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এ টুর্নামেন্টটা আমরা জাকজমকপূর্ন আয়োজন করতে চাই। তবে অবশ্যই সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে করতে হবে। টুর্নামেন্টটা যেন সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে হয় তার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। যথাযথ মর্যাদায় ও টুর্নামেন্ট আমরা উদযাপন করবো। এটির উদ্বোধন করবেন আমাদের চাঁদপুর – ৩ আসনের সংসদ মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপুমনি।

জেলা প্রশাসক বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে আমাদের দর্শকশূন্য গ্যালারীতে এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করতে হচ্ছে । তবে দর্শকরা যেন নিজ ঘরে বসে এ খেলা উপভোগ করতে পারে তাই স্থানীয় ক্যাবল নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে খেলাগুলো সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ ও টুর্নামেন্টের খেলোয়াড় ও খেলার সংশ্লিষ্ট ব্যাতীত কেউ মাঠে প্রবেশ করতে পারবেন না। এই টুর্নামেন্টের সাথে যারা থাকবেন, তাদের প্রত্যেককে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।

সভায় সঞ্চালনায় ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান।
সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, চাঁদপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ,চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, জেলা ক্রীড়া অফিসার মো. তরিকুল ইসলাম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু প্রমূখ।

টুর্নামেন্ট ৪টি পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে : (১) উপজেলা/থানা (সিটি কর্পোরেশনের ক্ষেত্রে) (২) জেলা/সিটি কর্পোরেশন (ঢাকা. চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও খুলনা) (৩) বিভাগ; (৪) জাতীয়।
(ক) উপজেলা পর্যায় (শুধুমাত্র বালকদের জন্য): উপজেলার ক্ষেত্রে ইউনিয়ন ভিত্তিক দল গঠন করে আন্তঃইউনিয়ন খেলার মাধ্যমে সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে উপজেলা দল গঠিত হবে। উপজেলার অন্তর্ভুক্ত পৌরসভা দল (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) এ
বিবেচিত হবে। উপজেলা দল জেলা পর্যায়ে আন্ত:উপজেলা খেলায় অংশগ্রহণ করবে ।

(খ) জেলা পর্যায় (বালক ও বালিকাদের জন্য):
(১) বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত দলের অংশগ্রহণে সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে জেলা দল গঠিত হবে। জেলা সদরের পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন দল (ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও খুলনা ব্যতীত) গঠনের ক্ষেত্রে উপজেলার সমতুল্য হিসেবে বিবেচিত হবে । জেলা দল ও ৪টি সিটি কর্পোরেশনের জেলার সমতুল্য দল স্থ স্ব বিভাগীয় পর্যায়ে আন্ত:জেলা টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করবে ।

(২) ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও খুলনা সিটি কর্পোরেশনের থানা পর্যায়ের সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে থানা দল গঠিত হবে। আন্ত:থানা প্রতিযোগিতার সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে সিটি কর্পোরেশন দল গঠিত হবে; যা একটি জেলার সমতুল্য।

(গ) বিভাগীয় পর্যায় (বালক ও বালিকাদের জন্য): সংশ্লিষ্ট বিভাগের জেলাসমূহ এবং ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও খুলনাসিটি কর্পোরেশনের দল নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী দলের মধ্য হতে সেরা খেলোয়াড়দের নিয়ে বিভাগীয় দল গঠন করতে হবে।(ঘ) জাতীয় পর্যায় (বালক ও বালিকাদের জন্য): ৮টি বিভাগীয় দল নিয়ে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে জাতীয় পর্যায়ের খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালক (অনূর্ধ্ব-১৭) ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট বালিকা (অনূর্ধ্ব-১৭) টুর্নামেন্টের খেলাগুলো হলো ১ জুন শাহরাস্তি বনাম ফরিদগঞ্জ,মতলব উত্তর বনাম পৌরসভা,হাইমচর বনাম হাজীগঞ্জ,২ জুন মতলব দক্ষিণ বনাম কচুয়া, চাঁদপুর সদর বনাম ম্যাচ ১ নং বিজয়ী। জেলা প্রশাসক নিজ হাতে লটারীর মাধ্যমে এটি নির্ধারণ করে দেন। এছাড়া খেলাগুলো ৯০ মিনিটকালের হলেও করোনা এই সময়ে খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য ও অন্যান্য বিষয়গুলো বিবেচনা করে ৬০ মিনিট নির্ধারণ করা হয়।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *