চাঁদপুরে সুজিত রায় নন্দীর সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

মহামরি করোনাভাইরাস সংকট মোকাবিলায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ উপকমিটির উদ্যোগে চাঁদপুরে প্রশাসন, স্বাস্থ্যবিভাগসহ বিভিন্ন সেবামূলক প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্য-সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ৯ আগস্ট সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় চাঁদপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ প্রতিনিধিদের হাতে এ স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ তুলে দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন,চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ,পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ,চাঁদপুর সরকারি জেনানেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা.মো.হাবিব-উল-করিম, চাঁদপুর সিভিল সার্জন ডা.মো.সাখাওয়াত উল্লাহ,চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।

সুজিত রায় নন্দী বলেন, বৈশ্বিক মহামরি করোনা ভাইরাস বাংলাদেশেও প্রভাব বিস্তার করেছে। মানুষের সচেতনতার অভাবে আমাদের অনেক মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এবয় মৃত্যুবরণ করেছে। তবে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনর মেধা, দক্ষতা, প্রজ্ঞায় অত্যন্ত সফলতার সঙ্গে করেনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করছছেন। উন্নত দেশগুলো যেখানে এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শীতার বিশ্বের অনেক রাষ্ট্রের চেয়ে আমরা ভালো রয়েছি।

তিনি আরো বলেন, করোনার এই পরিস্থিতি মোকাবেলায় দলমতের উর্ধে এসে আমাদের সম্মিলিত ভাবে এগিয়ে আসতে হবে। জননেত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে জনগণের পাশে থাকার নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মানবতা আর দারিতার প্রশ্নে কোন রাজনীতি নাই। তবে আমার নিজর সুরক্ষা নিজেদে দিতে হবে। আমার পরিবারের সুরক্ষা, প্রতিবেশির সুরক্ষা এবং দেশের সুরক্ষায় আমাদের ভূমিকা রয়েছে।

জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক নেতৃবৃন্দের কথা সাধারণ জনগণ বেশি গুরুত্ব দেন। তাই এ ক্ষেত্রে আমরা আপনাদের সহযোগীতা চাই। জনপ্রতিনিধি ও রাজনীতিবিদদের প্রতি অনুরোধ থাকবে, দয়া করে এই পরিস্থিতিতে ঘরে বসে না থেকে মানুষের সাথে সম্পৃক্ত থাকুন, মানুষকে সচেতন করুন। পাশাপাশি সামর্থবানরা মানবিক সহায়তা নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ান।

তিনি আরো বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অত্যন্ত বিচক্ষণের সাথে এই দুর্যোগ মোবাবেলায় নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর সঠিক এবং বিচক্ষণ নেতৃত্বের কারনে বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রের চেয়েও আমরা ভালো আছি। তিনি দ্রুততার সাথে করোনার ভ্যাকসিন ব্যবস্থা করেছেন। মানুষের মাঝে ভ্যাকসিন দেয়ার আগ্রহা বেড়েছে। সম্প্রতি গণটিকা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমরা ১দিনে ৬১ হাজার মানুষকে টিকা দিতে পেরেছি। সক্ষমতা জানান দিতে পেরেছি। তবে আমরা সচেতর হলেই করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

তিনি চাঁদপুরের সাংবাদিকদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, সাংবাদিরাও সম্মুখ সারির করোনা যোদ্ধা। আমি চাঁদপুর প্রেসক্লাবসহ সকল সাংবাদিকদের আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। এই ভাবে আপনারা আমাদের এবং চাঁদপুরবাসীর পাশে থাকবেন।

পরে চাঁদপুর জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, স্বাস্থ্যবিভাগ, সরকারি জেনারেল হাসপাতাল, কমিউনিটি পুলিশ, চাঁদপুর প্রেসক্লাব, মডেল থানাসহ বিভিন্ন সামাজিক, স্বেচ্ছাসেবী ও পেশাজীবী সংগঠনকে অক্সিজেন সিলিন্ডার, উন্নত মানের পিপিই, সার্জিক্যাল মাস্ক,স্পেশাল মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার,লিকুইড স্যাভলন,সাবানসহ অন্যান্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড.জহিরুল ইসলাম,জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আহসান হাবীব,সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া জীবন,আওয়ামী লীগ নেতা জসিম পাটওয়ারি, পৌর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. দেবাশীষ কর মধুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দরা।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *