চাঁদপুরে স্বাস্থ্যবিধি মানতে প্রশাসনকে কঠোর হতে নির্দেশ শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনির

চাঁদপুরের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনির সাথে জরুরি সভা করেছে জেলা প্রশাসন। সভায় শিক্ষামন্ত্রী চাঁদপুরে করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে সর্বত্র স্বাস্থ্যবিধি মানতে বাধ্য করতে প্রশাসনকে কঠোর হতে নির্দেশ দিয়েছেন। হাট-বাজার, হোটেল-রেস্তোরাঁ, যানবাহন, লঞ্চঘাট, বাসস্ট্যান্ডসহ সর্বত্র যেনো স্বাস্থ্যবিধি মানা হয় এবং এদিকে প্রশাসনের যাতে কঠোর নজরদারি থাকে সে বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি গুরুত্বারোপ করেন।

একই সাথে তিনি সকল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, দলীয় নেতা-কর্মী এবং সমাজ সচেতন সামর্থ্যবানদের এসব ক্ষেত্রে এগিয়ে আসার আহবান জানান। করোনার প্রথম ঢেউ যেমনিভাবে সকলের সম্মিলিত প্রয়াসে মোকাবেলা করা গেছে, তেমনি বর্তমানে দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায়ও সকলের সম্মিলিত প্রয়াসের প্রতি জোর দেন ডাঃ দীপু মনি এমপি।

১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে জুম অ্যাপের মাধ্যমে এ ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার শুরুতে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ এবং সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্লাহ চাঁদপুরে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির চিত্র তুলে ধরেন।

জেলা প্রশাসক তাঁর বক্তব্যে চাঁদপুর যে ঝুঁকিপূর্ণ ৩১টি জেলার একটি বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, করোনা মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন তা বাস্তবায়নে আমরা চাঁদপুরের প্রশাসন কাজ শুরু করে দিয়েছি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে আমরা বদ্ধপরিকর। ইতিমধ্যে আমরা গণবিজ্ঞন্তি জারি করেছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে সর্বত্র মাইকিং করা হচ্ছে। মোবাইল টিম মাঠে কাজ করছে। মাস্ক না পরায় মোবাইল টিম বেশ কয়েকজনকে জরিমানার আওতায়ও এনেছে। করোনা মোকাবেলা বিষয়ক জেলা কমিটির মিটিং করা হয়েছে। আজকে আমরা অটোবাইক, সিএনজি অটোরিকশা ও বাস মালিক সমিতির সাথে মিটিং করেছি। বিকেলে পুলিশ সুপার লঞ্চ মালিকসহ অন্যদের সাথে মিটিং করবেন। চাঁদপুরে করোনা পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণে থাকে সে জন্যে আমাদের সকল ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে এবং তা সর্বোচ্চ জোরদার করা হবে বলে জেলা প্রশাসক শিক্ষামন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন।

পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ বলেন,করোনার প্রথম ওয়েবে চাঁদপুরের পুলিশ যেভাবে মাঠে সক্রিয় ছিলো, এবারো সক্রিয় রয়েছে। প্রয়োজনে আরো কঠোর হবে। ইতিমধ্যে পুলিশ সদস্যরা করোনা মোকাবেলায় মাঠে কাজ শুরু করে দিয়েছে। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের এবং সরকারের প্রতিটি নির্দেশনা বাস্তবায়নে চাঁদপুরের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বদা প্রস্তুত বলে পুলিশ সুপার শিক্ষামন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন।

চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাডঃ জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন,প্রশাসন,জনপ্রতিনিধি এবং আমাদের দলের নেতা-কর্মীদের কাজের মধ্যে সমন্বয় থাকতে হবে। সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে সমন্বিত উদ্যোগ থাকতে হবে। আর সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মুখ্য ভূমিকা রয়েছে। কারণ,আমরা জনপ্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে পারি। কিন্তু আমরা কঠোর হতে পারি না। এ দায়িত্ব প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর।

সকলের বক্তব্য শোনার পর শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি সকলের উদ্দেশ্যে পুনরায় বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, এই বৈশ্বিক মহামারী মোকাবেলা করা শুধু প্রশাসন এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একার কাজ নয়। জনপ্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের যেমনি এখানে দায়িত্ব রয়েছে, তেমনি সমাজে নানা সেক্টরে যারা দায়িত্বশীল রয়েছেন যেমন শিক্ষক, সাংবাদিক, সংস্কৃতি কর্মী, বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠন,ইমাম সাহেবসহ ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ,ব্যবসায়ী সমিতি, বাজার কমিটি,পরিবহন সেক্টরের কমিটিসহ সকলের এই কাজে ভূমিকা রাখতে হবে। সকল পর্যায়ে মানুষকে সচেতন করতে হবে। তিনি লঞ্চে যাত্রী যাতায়াতের উপর সরকারের নির্দেশনা আরোপ করতে প্রশাসনকে কঠোর হতে নির্দেশনা দেন। লঞ্চ মালিকদের সাথে মিটিং করে তাদেরকে লঞ্চে যাত্রী পরিবহনে সরকারের নির্দেশনা অনুসরণ করতে বাধ্য করার জন্য জেলা প্রশাসককে মন্ত্রী নির্দেশ দেন।

এ ভার্চুয়াল সভায় আরো বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সহ-সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ, ইসলামিক ফাউন্ডেশন চাঁদপুর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ খলিলুর রহমান, এনএসআইর উপ-পরিচালক শেখ আরমান ও শিক্ষামন্ত্রীর চাঁদপুরস্থ প্রতিনিধি অ্যাডঃ সাইফুদ্দিন বাবু। সভায় আরো অংশ নেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ এবং কমিটির অন্য সদস্যরা।

শেয়ার করুন: