চাঁদপুর কারাগারে নারী হাজতির মৃত্যু

জ্বর শ্বাসকষ্টে গুরুতর অসুস্থ হয়ে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে উম্মে হাছিনা (৪১) নামে চাঁদপুর জেলা কারাগারের এক নারী হাজতির মৃত্যু হয়েছে। মৃত হাসিনা কচুয়া তুলাতুলি গ্রামের বাসিন্দা মাহবুবুর রহমানের স্ত্রী।

১২ আগস্ট বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে তার মৃত্যু হয়। এর কিচ্ছুক্ষণ আগে জেলা কারাগার থেকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ওই নারী হাজতিকে চিকিৎসার জন্য
তাকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়েছিল।

চাঁদপুর জেলা হাসপাতালের আরএমও ও করোনা ইউনিটের ফোকাল পার্সন ডা: সুজাউদ্দৌলা রুবেল জানান,হাসপাতালে আনার পর তাকে জরুরী চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর ওই নারী মারা যায়। তার করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদিকে,মৃতের সুরতহাল তৈরি করে ময়নাতদন্ত জন্য কারারক্ষী পাহারায় মৃতদেহ হাসপাতালে রাখা ছিল।

কারাগার সূত্রে জানা গেছে, কচুয়া থানার পৃথক দুটি মাদক মামলায় উম্মে হাসিনা প্রায় চৌদ্দ মাস যাবত কারাগারের নারী সেলে বন্দি ছিলেন। জ্বরসহ অন্য রোগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে মুর্মুর্ষ অবস্থায় চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

এ বিষয়ে চাঁদপুর জেলা কারাগারের জেলার মোহাম্মদ এনায়েত উল্যার মুঠোফোনে একাধিক কল করা হলে কোন রেসপন্স পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্ত শেষে তার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানা যায়।

এদিকে, একটি সূত্র জানা গেছে কারাগারে বর্তমানে ৭৪১ জন বন্দি রয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ৭১৫ জন এবং মহিলা ২৬ জন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে কারাগারে অনেক বন্দী অসুস্থ জীবন যাপন করলেও সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত। একেবারে মুর্মুর্ষ অবস্থা যখন হয় তখন হাজতি বা কয়েদীকে হাসপাতালে আনা হয়।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *