চাঁদপুর জেলা বিএনপির বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জেলা বিএনপির উদ্যোগে ভোলায় পুলিশের গুলিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল রহিম নিহত হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

২ আগস্ট মঙ্গলবার বিকেলে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এ সমাবেশ হয়।এর আগে শহরের বেগম জামে মসজিদ এলাকা থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিএনপি যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মিবৃন্দ দলীয় কার্যালয়ে সমবেত হয়।

সেখানে সমাবেশ করেন জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা। এতে সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুর জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক অ্যাডঃ সলিম উল্লাহ সেলিম।

সমাবেশে সংগঠনের জেলার নেতা ও চাঁদপুর পৌর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন মাঝির সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন জেলা মৎসজীবি দলের সভাপতি মোস্তফা কামাল, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল গাজী বাহার, জেলা ছাত্র দলের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল পাটওয়ারী,সদর উপজেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম নজু, পৌর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আঃ রাজ্জাক হাওলাদার, সদর উপজেলা ছাত্র দলের আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান।

সমাবেশের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলওয়াত করেন জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মুনীর চৌধুরী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুব আনোয়ার বাবলু,সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন খান বাবুল, সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সেলিমুছ সালাম,পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হারুনূর রশীদ, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. জহির উদ্দিন বাবর, সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মোশাররফ হোসাইন, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহজালাল মিশন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ জাহাঙ্গীর হোসেন খান,জেলা মহিলা দলের সভাপতি অ্যাডঃ মনিরা চৌধুরী,পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফ উদ্দিন আহমেদ পলাশ, জেলা যুবদলের সভাপতি মানিকুর রহমান মানিকসহ বিএনপি ও অংঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মিবৃন্দ।

জেলা বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সলিম উল্যাহ সেলিম বলেন,দলের নেতাকর্মীদের হত্যা করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে না সরকার। আগামী দিনে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নির্দেশে রাজপথে এই হত্যাকান্ডের কঠোর জবাব দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, আমরা জনগণের কথা বলব মানুষের কথা বলব বিদ্যুৎ দাও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমাও নইলে গদি ছাড়ো। তখন এই সরকারের পুলিশ বিনা উস্কানিতে আমাদের উপর হামলা চালায় নেতাকর্মীদের হত্যা করে আহত করে ।

তিনি বলেন,এক দফার আন্দোলন সংগ্রাম চলছে চলবে।বাধা দিলে বাধবে লড়াই।এই লড়াইয়ে জিততে হবে। বিক্ষোভ কর্মসূচিতে কয়েক’শ নেতা-কর্মী অংশ নেন।

শেয়ার করুন: