চাঁদপুর মহিলা অধিদপ্তরের প্রোগ্রাম অফিসার সাজিয়া আফরিনের বিরুদ্ধে সাংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুর মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের ট্রেড প্রশিক্ষক নিয়োগ বন্ধের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ভূক্তভুগীরা। এতে প্রশিক্ষকরা অভিযোগ করেন, সম্পূর্ণ অনিয়মতান্ত্রিকভাবে আমাদেরকে চাকরি থেকে সরানোর ষড়যন্ত চলছে। টাকার বিনিময়ে ট্রেড প্রশিক্ষণে নতুন লোকবল নিয়োগ প্রক্রিয়াকরণের অভিযোগও করেন তারা।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) বিকেলে চাঁদপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সংবাদ সম্মেলনে অনুষ্ঠিত হয়। ভূক্তভুগীরা হলেন : ব্লগবাটি শামীমা নাছরিন, দর্জি বিজ্ঞান সালমা আক্তার, কম্পিউটার অপারেটর সোহেল রানা, বিউটিফিকেশন রুমা আক্তার। এছাড়া এরমধ্যে হাসনা আক্তার (মোম ও সপিজ) মৃত্যু বরণ করেন।

এ সময় ভূক্তভুগী ট্রেড প্রশিক্ষক শামীমা নাছরিন বলেন, আমরা ৫ জন প্রশিক্ষক ২০১৪ সালে মহিলা বিষযক অধিদপ্তরে ট্রেড প্রশিক্ষক পদে যোগদান করি। প্রতিবছর আমাদের এই পদের নবায়ন করা হয় এবং সারাদেশে এই প্রজেক্টটি চলমান রয়েছে। এ কারনে সরকার এই প্রকল্পটি বাদ দেয়নি বিধায় আমাদেরকেও বাদ দেয়নি। আমরা এখনো চাকরিতে বহাল আছি। শুধু তাই নয়, সারাদেশের ৬৩ জেলায় পুরনো লোকদের দিয়েই কাজ করা হচ্ছে এবং তাদেরকে চাকরিতে বহাল রাখা হয়েছে। তাহলে কেনো চাঁদপুরে আমাদের বাদ দিয়ে নতুন করে নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এ থেকে বুজা যায় সম্পূর্ণ নিয়োগটি অর্থের বিনিময়ে করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, আমাদেরকে কোন অব্যাহতি দেওয়া হয়নি। চাঁদপুর মহিলা অধিদপ্তরের প্রোগ্রাম অফিসার সাজিয়া আফরিন বার বার আমাদেরকে বাদ দেওয়ার জন্য ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। তিনি নতুন নিয়োগপ্রাপ্তদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে আমাদের পদে নতুন করে লোক নিয়োগের জন্য প্রক্রিয়া চালান। যার প্রেক্ষিতে ২৯ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে নিয়োগের জন্য নতুন করে পরীক্ষা নেন এবং মৌখিখ পরীক্ষার জন্য অপেক্ষা রয়েছেন। এগুলো সম্পন্ন হলে আমদেরকে বাদ দিয়ে নতুনদের নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে। মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক রাফিয়া ইকবাল বলেছেন আমাদের নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে কোন সমস্যা নেই। তাহলে কেনো নতুন করে এমন নিয়োগ দেওয়া হলো।

সাংবাদিক সম্মেলন শামীমা নাছরিন আরো বলেন, আমার নতুন নিয়োগের বিষয়ে মহিলা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, মন্ত্রীমহোদয় এবং চাঁদপুরের জেলা প্রশাসককে অবহিত করি। তারা সকলেই আমাদের বক্তব্য শৃনে আমাদের পক্ষে সুপারিশ করেন। এমনকি ইতিপূর্বে আমাদের স্থানীয় সাংসদ ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিকে বিষয়টি অবগত করলে তিনিও আমাদের পক্ষে সুপারিশ করেন।

চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশার পরিচালনায় সাংবাদিক সম্মেলন বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী, এএইচএম আহসান উল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক মোরশেদ আলম, শাহাদাত হোসেন শান্তসহ প্রেসক্লাবের অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *