চাঁদপুর শহরে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে ২ গ্রুপের সংর্ঘষ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজারে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে ১নং ওয়ার্ডের শাহিন ও ২নং ওয়ার্ডের নজরুল ইসলামের গ্রুপের লোকজনের মধ্যে সংর্ঘষ হয়। এতে নারী-পুরুষসহ প্রায় ৩০জন আহত হয়। এছাড়া প্রায় ৩০টি ঘরবাড়ি ও দোকানপাট ভাংচুর করে। পরিস্থতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ব্যাপক টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে।

শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে পুরাণবাজারের নতুন রাস্তায় দফায় দফায় এ সংর্ঘষের সৃষ্টি হয়। প্রথমে পুরাণবাজার ফাঁড়ি পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে। কিন্তু নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় পরে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থলে যেয়ে তাদের সাথে যোগ হয়।

আহতদের মধ্যে লাবনী ও মামুনের অবস্থা গুরুতর। তবে সংর্ঘষটি চলাকালে নতুন রাস্তা এলাকায় বিদ্যুৎ চলে যায়। রাতে অন্ধকার হওয়ায় তাৎক্ষণিক সকলের নাম জানা সম্ভব হয়নি। এছাড়া ইটপাটকেলের আঘাতে কয়েকজন পুলিশ আহত হয়।

স্থানীয়রা জানায়, পুরাণবাজার মধুসুধন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মরহুম আবুল হোসেন স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ২য় রাউন্ডে লোহারপুল বনাম মোম ফ্যাক্টরির দুই দল অংশ নেয়। খেলা চলাকালীন সময়ে রেফারির একটি গোলের সিদ্ধান্তকে কেন্দ্র করে দুই দলের মধ্যে প্রথমে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতির সৃষ্টি হয়। পরে উভয়পক্ষের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তা নিয়ে পুরাণবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে সমাধানের লক্ষ্যে বসা হয়। দুই দলকে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ দিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। ফাঁড়ি থেকে বের হলেই উভয়পক্ষের মধ্যে আবার সংর্ঘষের সৃষ্টি হয়।

চাঁদপুর পুরাণবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ কামরুজ্জামান জানান,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ারসেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। পরে সঠিক তথ্য বলা যাবে।

শেয়ার করুন: