চাঁদপুর সদরে যুবতির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

চাঁদপুর সদর উপজেলার ১২ নং চান্দ্রা ইউনিয়নের প্রেমঘটিত কারণে অভিমান করে যুবতীর আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (৮ জুলাই) বিকেলে চান্দ্রা ইউনিয়নের দক্ষিণ বালিয়া গ্রামের বাবুল বেপারী বাড়ি থেকে হোসনেআরা আক্তার(১৯) নামে ওই যুবতীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত হোসনে আরা দক্ষিণ বালিয়া গ্রামের ৯ নং ওয়ার্ডের বাবুল বেপারী মেয়ে।

তার মা জোহরা বেগম জানায়, মোবাইল ফোনে গত দুই বছর পূর্বে হোসনেয়ারা আক্তার কুমিল্লা জেলার রনি নামে এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বুধবার দুপুরে তার সাথে মোবাইল ফোনে তার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। বিকেলে মেয়েকে রেখে গোসলখানায় গেলে সেই সুযোগে দরজা আটকে সে ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ নিচে নামিয়ে আনা হয়। প্রেম ঘটিত কারণে হোসনেয়ারা অভিমান করে নিজে আত্মহত্যা করেছে। নিহত হোসনেয়ারা আক্তার দুই ভাই তিন বোনের মধ্যে সে ছিল তৃতীয় সন্তান।

ঘটনার পর ইউপি চেয়ারম্যান খানজাহান আলী কালু পাটোয়ারী ও ইউনিয়নের মেম্বার সিদ্দিকুর রহমান ঘটনাস্থলে এসে পরিদর্শন করে বিষয়টি চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশকে অবহিত করেন। খবর পেয়ে চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশটি সুরতাল করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *