চাঁদপুর সরকারি কলেজে বার্ষিক ক্রীড়ার পুরস্কার বিতরণ

আনোয়ারুল হক:

চাঁদপুর জেলার সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ চাঁদপুর সরকারি কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৫ মার্চ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কলেজ ক্যাম্পাসে বর্ণাঢ্য এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির শিক্ষামন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চাঁদপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা সর্বস্তরে শিক্ষার মান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। যাতে করে আমরা আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে সুনাগরিক ও বিশ্ব নাগরিক হিসাবে গড়ে তুলতে পারি। আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে জাতীর পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বির্নিমাণে এক সাথে কাজ করে যেতে যাই।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এই সরকারের বিগত শাসনামলে শিক্ষা খাতের অভূতপূর্ব উন্নয়ন ও সৃজনশীল মেধার বিকাশ ঘটানো সম্ভব হয়েছে। আগামী দিনগুলোতে শিক্ষার মানোন্নয়নে আমরা বদ্ধপরিকর। শিক্ষার মানোন্নয়নের মধ্য দিয়ে আমাদের শিক্ষার্থীরা যেন জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি মানবিকতা, নৈতিকা গুনাবলী সম্পন্ন হয়ে সত্যিকারের দেশ প্রেমিক হিসেবে গড়ে উঠতে পারে সেজন্যে আমরা চেষ্টা করছি।

চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর অসিত বরণ দাশের সভাপতিত্বে ক্রীড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মোহাম্মদ গোলাম ফারুক।

চাঁদপুর সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক আলমগীর হোসেন বাহারের পরিচালনায় অ চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো জামাল হোসেন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধাআবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, চাঁদপুর সরকারি কলেজের সবেক অধ্যক্ষ ড. এ.এস.এম. দেলওয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মজিবুর রহমান ভুইয়া, চাঁদপুর সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা, ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী মাসুদা নুর খান, জেলা যুব লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, চাঁদপুর প্রেসক্লারেব সাবেক সভাপতি শরীফ চৌধুরী, ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো.জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনসহ গণ্যমান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শুরুতেই পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠ করা হয়। পরে জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে পতাকা উত্তোলন, শান্তির পায়রা উন্মুক্ত আকাশে উড়ানো, কুচকাওয়াজ ও প্রদর্শনী করা হয়।

সবশেষে শিক্ষামন্ত্রী কলেজের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *