চুরি হওয়া ইজিবাইকের কষ্ট সইতে না পেরে চালকের মৃত্যু

মতলব সংবাদদাতা:

হত দরিদ্র আবুল বাশার( ৩১) এর একমাত্র রোজগারের সম্বল তার ইজিবাইকটি। বুধবার রাতে গ্যারেজের তালা ভেঙ্গে চুরি করে নেয় দুর্বৃত্তরা। চুরি হওয়া ইজিবাইকের কষ্ট সইতে না পেরে আজ ১১ মার্চ শুক্রবার দুপুর একটার দিকে থেকে সে স্ট্রোকে মারা যায়।

মতলব দক্ষিণের খাদেরগাঁও ইউনিয়নের নাগদা হাজী বাড়ির মৃত কফিল উদ্দিন মাওলানার ছেলে আবুল বাশার। সে পেশায় একজন ইজিবাইক চালক। ইজি বাইক চালিয়ে যা রোজগার করতো তা দিয়ে তার স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তানের সংসার চলতাে।

জানা যায়, বুধবার কাজ শেষে সে তার নাগদা স্কুলের সামনে সাইফুল ইসলাম তালুকদারের মার্কেটের গ্যারেজে রেখে বাড়ি চলে যায়।রাতে ওই গ্যারেজেতার নিজের,তার ভাই আবুল খায়েরের ও সলিমুদ্দিন বেপারী বাড়ির মোতালেবের গাড়ি রাখত। ওই রাতে গ্যারেজের সাটারের তালা ভেঙ্গে তিনটি ইজিবাইকে চুরি হয়। এতে ওই তিন চালকের প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে গ্যারেজ খুলতে এসে তালা ভাঙ্গা দেখে ও গ্যারেজের ভিতর তাদের ইজিবাইক নাই দেখে ডাক চিৎকার দেন। রোজগারের একমাত্র সম্বল চুরি হওয়ায় চালক বাশার মানসিকভাবে ভেঙ্গে অসুস্থ হয়ে পড়ে। অবস্থার অবনতি দেখলে আজ শুক্রবার সকালে তাকে মতলব সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জানায় রোগী স্ট্রোক করেছিলেন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে পাঠালে পথে দুপুর একটার দিকে সে মারা যায়।

এলাকাবাসী জানায়, অভাবের সংসারে স্ত্রী ও দুই মেয়ের প্রতিদিনের খাবার ও খরচ যোগারের ভরসা ছিল তার এই গাড়ি। গাড়ি চুরির শোক সইতে না পেরে সে স্ট্রোক করে মারা গেলো।

খাদেরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মনজুর হোসেন রিপন মীর বলেন, ইজিবাইক চুরিকে কেন্দ্র করে বাশার মারা গেছে আমি জানতাম না। তবে এলাকায় চুরি ডাকাতি বেড়ে গেছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published.