ছেংগারচর পৌরসভা তফসিলে দেরি, ঝিমিয়ে গেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা

মতলব উত্তর ব্যুরো:

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের জন্য একে একে পাঁচ ধাপে ঘোষণা করা হয়েছে তফসিল। এতে মতলব উত্তর উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের নাম এসেছে, গত ২৮ নভেম্বর ইউপি নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন হয়। ব্যতিক্রম শুধু ছেংগারচর পৌরসভার। এখানকার সম্ভাব্য প্রার্থীরা আটঘাট বেঁধে মাঠে নামলেও এখনো তফসিল হয়নি। ফলে তাঁরা ঝিমিয়ে গেছেন।

সর্বশেষ পঞ্চম ধাপের তফসিলে মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভার নাম রাখা হয়নি। এতে করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ’সহ অন্য দলগুলো থেকে নির্বাচন করতে আগ্রহী নেতাদের তেমন কোনো তৎপরতা নেই।

ভোটের মাঠে মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভা এক আলোচিত পৌরসভার। এটি প্রথম শ্রেণী মর্যাদার পৌরসভা।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে মনোনয়ন পাওয়া নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতারা দৌড়ঝাঁপ চালিয়ে গেলেও এখনো তফসিল না হওয়ায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচারের মাঠে খুব একটা পাওয়া যাচ্ছে না। তবে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় পার্টি, স্বতন্ত্র হিসেবে বিএনপি প্রার্থী দিতে পারে।
প্রার্থিতা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে কৌতূহল। আওয়ামী লীগ থেকে কারা প্রার্থী হবেন তা নিয়ে দলের বাইরে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের মধ্যেও চলছে নানা রকম জল্পনা-কল্পনা। মতলব উত্তরে আওয়ামী লীগ কয়েক ভাগে বিভক্ত হয়ে আছে।

সাবেক ত্রাণমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এঁর নেতৃত্বেই আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হবে বলে অনেকে মনে করছেন।

এদিকে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর-দক্ষিণ) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল এর নেতৃত্বে নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়ন দেয়া হবে বলে তাঁর সমর্থকরা মনে করেন।

অপরদিকে পরিকল্পনা মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী প্রফেসর ড. শামসুল আলম ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল এর জন্মস্থান হওয়ায় তাঁদের ও রাজনৈতিক ভাবে পছন্দের প্রার্থী থাকতে পারে বলে অনেকে মনে করছেন।

উপজেলা পর্যায়ের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের ভরাডুবি হওয়ায় ছেংগারচর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী যাচাই-বাছাই করে দেয়া হবে।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, এই ছেংগারচর পৌরসভা ষষ্ঠ ধাপে নির্বাচন হতে পারে। কয়েকটি ইউনিয়নে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীরা জয়লাভ করায় ছেংগারচর পৌরসভায় প্রার্থী মনোনয়নে ভুল হলে এখানেও বিদ্রোহী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সরকার আবুল কালাম আজাদ জানান, তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে মতলব উত্তরে নৌকার ফল বিপর্যয় হওয়ায় ষষ্ঠ ধাপের নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়নের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করা হবে।

শেয়ার করুন: