জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরের জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (২১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ সভাপতির বক্তব্যে বলেন, আগামী ১৬ ডিসেম্বর ৫০ বছর পূর্তি উদ্যাপন করবো। যথাযথ মর্যাদায় আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্যাপন করবো। এ উপলক্ষে আমরা প্রস্তুতিমূলক সভা করেছি। দুটি বিষয় আমরা এ দিনে নতুন সংযোগ করেছি। দিবসটিকে আলোকচিত্র প্রদর্শনী থাকবে এবং নাটক মঞ্চায়িত হবে। আমরা সবকিছুই উদ্যাপন করবো, কিন্তু অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের সমস্যা আমি আন্তরিকভাবে সমাধানের চেষ্টা করি। বিভিন্ন সমস্যা সমাধান করা হয়েছে। আমি চেষ্টা করেছি যেন মুক্তিযোদ্ধারা তাঁদের প্রাপ্য পান। মুক্তিযোদ্ধারা সবসময় মূল্যায়িত হবে। তাঁদের মূল্যায়ন করলে আমরা কৃতজ্ঞ জাতি হিসেবে মূল্যায়িত হবে। গ্রাম-আদালতের প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক বলেন, গ্রাম আদালতে যদি বিচার কার্যক্রম সম্পন্ন হয়। স্থানীয়ভাবে যদি নিষ্পত্তি হয় তাহলে তাদের গ্রাম থেকে শহরে এসে আইনজীবীর কাছে যেতে হবে না। এ ক্ষেত্রে চেয়ারম্যানদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে। যে ধারার বিচার করতে পারে তাদের সেই ধারা সম্পর্কে অবহিত করতে হবে।

তিনি বলেন, অবৈধ সিএনজি-ইজিবাইকের বিরুদ্ধে অভিযান করতে হবে। মোবাইল কোর্ট শহর এলাকায় আরো বেশি বাড়াতে হবে। যানজট নিরসনের সবার সহযোগিতা দরকার। সকল অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে হবে। জেলা প্রশাসক হাসপাতাল প্রসঙ্গে বলেন, শিক্ষামন্ত্রী মহোদয়সহ হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা হয়েছে। এরপর আমরা সরকারি হাসপাতাল ঘুরে দেখেছি। হাসপাতালটি আগে থেকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন হয়েছে। হাসপাতাল যদি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন না থাকে তাহলে রোগ জীবানু বাড়তে পারে। তনি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রসঙ্গে বলেন, শুক্রবার জুম্মা নামাজের খুতবার সময় কোরআন-হাদিসেরের আলোকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বিষয়গুলো বলতে হবে। এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করতে হবে। আমাদে অনেক ইমাম সাহেব আছেন যারা সোস্যাল মিডিয়াতে সম্পৃক্ত আছেন। আমাদের ধর্মে একজন অমুসলিমকে রক্ষা করার কথা বলা আছে, সেসব বয়ান দেয়া দরকার। সঠিক কথাগুলো তুলে ধরতে হবে। বিকৃত প্রচারণা না করে সঠিক প্রচারণা করতে হবে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহিউদ্দিন, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, এনএসআই-এর উপ-পরিচালক শাহ আরমান আহমেদ, ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক একেএম মাহাবুবুর রহমান, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ ওয়াদুদ, ফরিদগঞ্জের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারী, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান প্রমুখ।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *