জেলা জজ আদালতে পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্সে

চাঁদপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় পুলিশ ম্যাজিস্ট্রেসী কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা ও দায়রা জজ এস.এম.মোঃ জিয়াউর রহমান।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কারণে আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি। বাংলাদেশ কে উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত করার জন্য বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছেন। ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে সকলকে আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

তিনি আরও বরেন, ভুলের উদ্ধে কেউ নয়। আপনার আমার সকলেরই ভুল হতে পারে। বিচার কার্য পরিচালনার ক্ষেত্রে বিচারক কে সহায়তার মনমানসিকতা থাকতে হবে। চাঁদপুরে পুলিশ ম্যাজিস্ট্রসী সম্পর্ক খুবই ভাল। আমরা সকলেই সেবার মনোভাব নিয়ে চাঁদপুরকে এগিয়ে যাচ্ছি।

সভাপতির বক্তব্যে চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ সামছুল ইসলাম তার বকত্বব্যে বলেন, বিচার পেশা নিয়ে হেলাবেলার সুযোগ নেই। সঠিক বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই পুলিশ কে কাজ করতে হবে। তদন্তে গেলে অনেক সময় পুলিশ আলামত সংগ্রহ করেন না। যার ফলে আমাদের বিচার কার্য্য পরিচালনা করতে সমস্যার সমূখীন হতে হয়। আমরা ন্যায় বিচারের কথা বলি। তবে ন্যায় বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে কেউ সহায়তা করি না। মৎস্য আইনে জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে। জব্দ তালিকা হবে সব থাকবে মাছ থাকবে না, তা হবে না। এ ধরনের কাজ এখন থেকে আপনারা আর করবেন না। ১৬৪ জবানবন্দি নিলে পুলিশ কে সময় ও স্থান উল্লেখ করতে হবে। তা না হলে আসামী গ্রহণ করা হবে না। অহেতুক রিমান্ড চাইবেন না। তদন্তে গাফিলতি থাকলে কোন মামলাই নিষ্পত্তি সম্ভব নয়।

সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হাসান জামান এর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী মোঃ আবদুর রহীম, জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্লাহ্,২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতাল তত্ত্বাবধায়ক ডা. মোঃ হাবিব উল করিম, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ কামাল হোসাইন, সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন, জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কার্তিক চন্দ্র ঘোষ, জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি অ্যাড.ইব্রাহিম খলিল।

বক্তব্য সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল উদ্দিন আহমেদ, চাঁদপুর পিবিআই এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শংকর কুমার দাস, জেল সুপার মোঃ গোলাম দস্তগীর, পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক নাজিম হোসেন শেখ, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক এ কে এম দিদারুল ইসলাম,পাবলিক প্রসিকিউর অ্যাড. রনজিৎ রায় চৌধুরী, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাড. সাইয়েদ্যুল ইসলাম বাবু,শাহরাস্তি থানার ওসি শাহ আলম, হাজীগঞ্জ থানার ওসি আলমগীর হোসেন রনি, মতলব দক্ষিণ থানার ওসি মহিউদ্দিন মিয়া, হাইমচর থানার ওসি জহিরুল ইসলাম,কচুয়া থানার ওসি মোঃ মহিউদ্দিন,ফরিদগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি সুজন কান্তি বড়ুয়া, চাঁদপুর মডেল থানার ওসি তদন্ত হারুনুর রশিদ, কোর্ট পরিদর্শক মোঃ হাসানুজ্জামান।

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *