জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে মহিলা সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির ভাষার অধিকার এনেদিয়েছেন। তিনি একটি স্বাধীন সার্বভৌম জাতি রাস্ট্র উপহার দিয়েছেন। বিশ্বে বাঙালী জাতির মাথা উঁচু করেছেন। তাঁরই উত্তর সূরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সে জাতি রাস্ট্রকে উন্নত জাতিতে পরিণত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, উন্নয়নের সময় ভিক্তিক রূপরেখা ঘোষণা করেছেন।

২৩ ফেব্রুয়ারী বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টায় চাঁদপুর সদর উপজেলা ৫ নং রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ (১ম সংশোধিত) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় গণযোগাযোগ অধিদপ্তর, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় ও জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে মহিলা সমাবেশ প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন।

চাঁদপুর সদর উপজেলা ৫ নং রামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আল মামুন পাটওয়ারী সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, ঢাকা গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ প্রকল্প মোহাম্মদ ফারুক দেওয়ান, পরিচালক ( কারিগরি ও প্রশিক্ষণ ) মোঃ তৈয়ব আলী, জেলা তথ্য অফিসার মোঃ মনির হোসেন ,রাজরাজেস্বর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ হযরত আলী বেপারীসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান, স্হানীয় জনপ্রতিনিধি ও শতাধিক মহিলা সমাবেশে অংশ নেন।

গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আরো বলেন, উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশ বিশেষ গতি নিয়ে অগ্রসর মান।কোভিড পরিস্থিতির মধ্যে বাংলাদেশের উন্নয়ন থেমে থাকেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর ক্ষমতায়নকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। বিশ্বের অনেক দেশ নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশের পদক্ষেপ অনুসরণ করছেন। বাল্যবিবাহ সামাজিক অভিশাপ, নারী আত্মনির্ভরশীল হওয়ার পথে অন্তরায়। বাল্যবিবাহ নারীর উজ্জ্বল সম্ভাবনাকে অংকুরেই বিনষ্ট করে দেয়। তাই বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে। কোনো অবস্থাতেই কন্যা সন্তানের লেখাপড়া বন্ধ করা যাবে না। কারণ একটি কন্যা সন্তানের লেখাপড়া বন্ধ করা মানে একটি ভবিষ্যত পরিবারকে অন্ধকারে ঠেলে দেয়া। আগামী দিনগুলোতে একজন উপার্জনে সংসার চালানো কঠিন হয়ে পড়বে। তাই পরিবারের দুইজনকে উপার্জন করতে হবে। বিশেষত ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের যুগে টিকে থাকতে কারিগরি শিক্ষার উপর গুরুত্বরোপ করেন।

প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারী শনিবার দেশব্যাপী ১ কোটি কোভিড টিকা প্রদান করা হবে। যারা টিকা গ্রহণ করেননি, তাদের টিকা গ্রহণের জন্য মহাপরিচালক অনুরোধ করেন। পাশাপাশি বাড়ির আশেপাশে কেউ টিকা গ্রহণ না করলে তাকে টিকাদান কেন্দ্রে পাঠানোর অনুরোধ করেন। অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান বলেন, সরকার নারীর উন্নয়নে ও নারীর ক্ষমতায়নে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে বিভিন্ন ধরনের ভাতা প্রদান করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে এদেশে আর্থসামাজিক উন্নয়ন হয়েছে এবং এ ধারা অব্যাহত থাকবে।

গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের পরিচালক তৈয়ব আলী বলেন, করোনা অতি মহামারিতে দেশব্যাপী বাল্যবিবাহ প্রকট আকারে ধারণ করেছে। এর মোকাবিলায় সমাজের সকল শ্রেণির মানুষকেই স্হানীয় প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে হবে। এ সময় তিনি বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে শিক্ষক, আনসার, ভিডিপির গ্রাম দলনেতা – নেত্রী, স্হানীয় জনপ্রতিনিধি ও দলীয় নেতৃবৃন্দের সহযোগিতা কামনা করেন। একেই সাথে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি ও ভূমি ব্যাবস্হানা ক্ষেত্রে ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা গ্রহণ জন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ ফারুক দেওয়ান বলেন, এ প্রকল্পের মাধ্যমে সরকারের মেঘা প্রকল্প ও ১০ টি বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণের উদ্দেশ্য ও ফলাফল জনগণকে অবহিতকরণ টেকসই উন্নয়ন অভিষ্ঠ ( এসডিজি), ভিশন – ২০২১ ও ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্যে অর্জনে দেশব্যাপী প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, মাদক, বাল্যবিবাহ, সন্ত্রাস, জঙ্গি তৎপরতা, দূর্নীতি, চাঁদাবাজি, খাদ্যে ভেজাল মিশ্রণ, নারী ও শিশু পাচার ইত্যাদি প্রতিরোধে প্রচলিত আইন সম্পর্কে সচেতনতামূলক প্রচারণা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নারী শিক্ষার উন্নয়ন, নারী ক্ষমতায়ন ইত্যাদি বিষয়ে সরাসরি যোগাযোগমূলক কার্যক্রম ইউনিয়ন হিসেবে এ প্রকল্পের আওতায় দেশব্যাপী ১৪০০ টি মহিলা সমাবেশ করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published.