জেলা পরিষদে শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৮ তম জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস উদযাপন উপলক্ষে জেলা পরিষদের আয়োজনে আলোচনা সভা,মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।

১৮ অক্টোবর সোমবার বেলা ১২ টায় জেলা পরিষদের হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভা প্রধানের বক্তব্য রাখেন,চাঁদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওচমান গণি পাটওয়ারী।

এ সময় তিনি বলেন, আমি সর্ব প্রথমেই জাতির পিতার পরিবারের যাদেরকে হত্যা করা হয়েছে তাদেরকে গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি। পৃথিবীর ইতিহাসে অনেক মহামানব ষড়যন্ত্রে হত্যার শিকার হয়েছেন। তেমনি জাতির পিতাকেও ষড়যন্ত্র করে হত্যা করা হয়েছিলো। তারা সেদিন নিষ্পাপ শিশু শেখ রাসেলকেও ছাড় দেয়নি।

তিনি বলেন,১৫ আগস্ট যেভাবে জাতির পিতাকে হত্যা করেছে। সেটি একদিনে হয়নি। তারা দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পিত ভাবে তাকে হত্যা করেছেন। তিনি সবসময় বাঙ্গালীদের নিয়ে কাজ করতেন,বাঙ্গালীদের নিয়ে ভাবতেন। বাঙ্গালীকে ভালোবাসতেন। এই বাঙালি জাতি,এই বাংলাদেশকে নিয়ে তার অনেক স্বপ্ন ছিল। কিন্তু ষড়যন্ত্রকারীরা তার সেই সুন্দর স্বপ্নগুলো পূরণ হবার আগেই তাকে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে।

সেদিন সবাই দেখেছেন জাতির পিতাকে কি নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। তারপর শেখ রাসেলকেও বাদ দেননি তারা । শেখ রাসেল কেনো জাতির পিতার সন্তান হলো, এটাই কি তার অপরাধ ছিলো। তা না হলে কেনো এক নিষ্পাপ শিশু শেখ রাসেলকে এভাবে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যার মাধ্যমে তারা বিশ্বের কাছে দেশকে কলংকিত করেছে।

তিনি যাদের অনেক বিশ্বাস করেছিলেন। তারাই তার সাথে বিশ্বাস ঘাতকতা করে তাকে তাকে সহ পরিবারের সকলকে হত্যা করেছে। তারা তার সেই আত্মবিশ্বাসের মর্যাদা দেয়নি।

তিনি আরো বলেন, ওইসব ষড়যন্ত্রকারীরাআজকে ধর্মের দোহাই দিয়ে সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। যারা সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে তারা কুলাঙ্গার। এ জাতিকে কুলাঙ্গার মুক্ত করতে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বর্তমান প্রজন্মকে ইতিহাস জানিয়ে আমাদের সবাইকে এক ও অভিন্ন হয়ে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন,জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান,
জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ও মৈশাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ নুরুল ইসলাম পাটওয়ারী,প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন রাসেল,জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ মুকবুল হোসেন মিয়াজী,সদস্য মোঃ সালাউদ্দিন,জেলা পরিষদের সংরক্ষিত সদস্য আয়শা রহমান লিলি,চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাসুদুর রহমান পরান,চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পারভেজ করিম বাবু প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন, জেলা পরিষদ জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মনির হোসেন। দোয়া ও আলোচনা সভার পূর্বে শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সহ অন্যান্য সদস্যরা।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *