টাইগারদের ঐতিহাসিক সিরিজ জয়

নিজস্ব প্রতিবেদক:

দক্ষিণ আফ্রিকায় ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশ। প্রোটিয়াদের হারিয়ে প্রথমবারের মতো ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে তামিম ইকবালের দল। লড়াই করে নয়, দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশ সিরিজ জিতেছে দাপুটের সঙ্গে। ২০ বছরে আগের তিন সফরে প্রোটিয়াদের হারাতে না পারলেও এবার তামিমের নেতৃত্বে সেই গেরো কেটেছে বাংলাদেশের। জয়ের সঙ্গে সিরিজের ট্রফিটাও পেল বাংলাদেশ।

আজ সেঞ্চুরিয়নের সুপারস্পোর্ট পার্কে আগে ব্যাটিং করে ১৩ ওভার বাকি থাকতেই ১৫৪ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকেরা। রান তাড়ায় ৯ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। দারুণ ব্যাট করা তামিম অপরাজিত ছিলেন ৮৭ রানে।

ছোট লক্ষ্য পেয়ে দুর্দান্ত শুরু করেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। ইনিংসের শুরু থেকে প্রোটিয়া বোলারদের ওপর ঝড় তোলেন তাঁরা। একপ্রান্তে তামিম যখন রান এগিয়ে নিচ্ছিলেন, অন্যপ্রান্তে উইকেট আগলে ব্যাটিং করেছেন লিটন। ৫২ বলে ব্যক্তিগত ফিফটি তুলে নেন তামিম।

এরপর আরও বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন অধিনায়ক তামিম। তাকে দারুণ সঙ্গ দেন লিটন। দলীয় সংগ্রহ ১০০ পেরোনোর পর দু’প্রান্তে দ্রুত রান তোলেন এই জুটি। ১২৭ রানের এই জুটি ভাঙেন কেশভ মহারাজ। ৫৭ বলে ৮ চারে ৪৮ রান করে ফেরেন লিটন। তিনে আসা সাকিব আল হাসানকে নিয়ে বাকি কাজ সারেন তামিম।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রোটিয়াদের শুরুটা হয়েছিল দুর্দান্ত। উদ্বোধনী জুটিতে পেয়েছিল ৪৬ রানের সূচনা। তবে পরের গল্পটা বাংলাদেশের বোলারদের। একে একে পাঁচ ব্যাটারকে ফিরিয়ে প্রোটিয়াদের টপ অর্ডার ধসে দেন তাসকিন আহমেদ। এর মাঝে এই পেসারদের সঙ্গে দারুণ তাল মিলিয়েছেন শরীফুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাকিব আল হাসানও।

প্রথম ওয়ানডের মতো ফের হাল ধরেছিলেন ডেভিড মিলার। ২৯ তম ওভারে তাসকিন তাঁকে ফেরাতেই খেই হারিয়ে ফেলে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই ওভারেই রাবাদাকে মুশফিকুর রহিমের ক্যাচ বানিয়ে পাঁচ উইকেট পূর্ণ করেন তাসকিন। এরপর দ্রুত সাকিব লুঙ্গি এনগিডিকে আউট করে ও অধিনায়ক তামিম কেশব মহারাজকে রানআউট করেন স্বাগতিকদের লেজ ছেঁটে দেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published.