ডাকাতিয়ার ভাঙ্গনে দিশেহারা গাছতলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চাঁদপুরে ডাকাতিয়া নদীর ভাঙনের মুখে পড়েছে প্রায় আড়াইশ’পরিবার। ইতোমধ্যে ১৫ থেকে ২০টি পরিবারের বসতঘরসহ নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। স্থানীয়দের দাবি দীর্ঘদিন অল্প অল্প করে ভাঙার কারণে বিষয়টি নজরে পড়েনি কর্তৃপক্ষের। অসহায় এসব পরিবারের ভাঙনরোধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তারা।

সরেজমিনে দেখা যায়, ডাকাতিয়া নদীর ইসলামপুর গাছতলা এলাকার ৪নং ওয়ার্ড জমাদার বাড়ি সংলগ্ন নদী তীরবর্তী এলাকায় গত তিনদিন আগেও ভাঙনের শিকার হয়েছে এলাকাবাসী। ৮০০ মিটার জায়গাজুড়ে চলছে এই ভাঙন তান্ডব। এতে এলাকার ২শ’ অধিক পরিবারের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। নদী তীরবর্তী কয়েকটি ঘর যেকোনো মুহুর্তে তলিয়ে যেতে পারে নদী গর্ভে।

স্থানীয় সাজু জমাদার, আবু তাহের জমাদার, করিম মুন্সীসহ অনেকেই জানান, গত ১০ বছরে নদীগর্ভে চলে গেছে অনেক পরিবার, কবরস্থানসহ ফসলি জমি। এছাড়া স্থানীয় আবু তাহের জমাদার এর বসার ঘরটি নদী থেকে মাত্র ৩/৪ হাত দূরে হওয়ায় তিনি আছেন চরম আতঙ্কে। যেকোনো মুহুর্তে চলে যাবে ঘরটি। নিজের কোনো জায়গা জমি না থাকায় অন্য কোথাও আশ্রয় নিতে পারছেন না তিনি।

এছাড়াও যারা অতীতে এমন ভাঙনের কবলে পড়েছেন তারা দূরবর্তী কোথাও গিয়ে নিজের কোনো আত্মীয়ের কাছে আশ্রয় নিয়েছেন।

মানিক জানান, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বেশ কয়েকবার সরেজমিনে স্থানটি প্রদর্শন করে গেলেও কার্যকর কোনো পদক্ষেপ এখনো নেওয়া হয়নি।

তারা জানান, বর্ষায় নদীতে পানি বৃদ্ধি ও স্রোত বৃদ্ধির কারণে প্রতি বছরই এ ভাঙন দেখা যায় তবে এ বছর অন্যান্য বছরের তুলনায় একটু বেশি ভেঙেছে। অসহায় তীরবর্তী পরিবারগুলো খুবই আতঙ্কে রাত কাটান। তাই তাদের কথা বিবেচনা করে দ্রুত ভাঙন রোধে কার্যকর পদক্ষেপ নিলে উপকৃত হবে স্থানীয় মানুষ।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *