দুই পুত্রকে মাদক বিক্রিতে বাঁধা দেয়ায় মতলব উত্তরে বাবা-মাকে মারধর করে বাড়ি ছাড়া

মতলব উত্তর প্রতিবেদক:

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় মাদক বিক্রির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় মা আকলিমা বেগম (৬০) ও বাবা জামাল হোসেন (৭৫)কে মারধর করে ঘর থেকে বের করে দিয়েছে মাদকাসক্ত দুই ছেলে ফারুক (২৭) ও সুমন (৪৫)। এখনও পিতা-মাতা ঘর ছাড়া রয়েছে।

গত বুধবার (২৪ মার্চ) উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের বদরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। একই কারণে দু’সপ্তাহ আগে নিজের বাবাকেও বের করে দেয় তারা। ঘরে ঠাঁই না পেয়ে বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে ন্যায় বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন ঐ বাবা-মা।

এ ঘটনায় মেম্বার’সহ স্থানীয় নেতাদের দ্বারে-দ্বারে ঘুরেও কোন সুরাহা পাচ্ছেন না তারা। এমনকি জাতীয় জরুরি সেবার হটলাইন ‘৯৯৯’ এ কল দিলে ঘটনাস্থলে এসেও বিষয়টির কোন সমাধান করতে পারেনি পুলিশ। এদিকে ঘটনা শুনে শশুরবাড়ি থেকে ছুটে আসলেও মাদকাসক্ত ভাইদের তোপের মুখে বাবা-মাকে নিয়ে ঘরে ডুকতে পারছে না বোন রোকসানা আক্তার ।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বদরপুর গ্রামের মৃত. আবদুল কাদের বেপারীর ছেলে জামাল হোসেন (৬৩) তিন সন্তানের জনক। দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে সুখেই কাটছিল জামাল হোসেনের সংসার। মেয়ে রোকসানা আক্তারের জীবন ভালোই কেটেছে। তবে ৫ম শ্রেণিতেই লেখাপড়ায় ইতি টেনেছে তার দুই ছেলে ফারুক ও সুমন। শৈশব থেকেই তাদের বেপরোয়া জীবনযাপন। মাদক অধ্যুষিত এলাকা হওয়ায় প্রায় পরিবারের অগোচরে মাদকাসক্ত হয়ে এই ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়েছে তারা। বর্তমানে দাম্পত্য জীবনে ৫ম শ্রেণীর একটি সন্তানের জনক ফারুক ও ২ দুই সন্তানের জনক সুমন।

মাদকাসক্ত ফারুক ও সুমনের উশৃঙ্খল জীবন-যাপনে বাঁধা দেওয়ায় ছেলেদের হামলার শিকার হয়েছেন বাবা-মা। মাদকাসক্ত ছেলের নির্যাতন সইতে না পেয়ে এর আগে ১ বছর, ৯ মাস ও ৮ মাসের এই তিন দফায় কারাদন্ডে মাদকাসক্ত ছেলেকে থানায়ও সোপর্দ করে মা-বাবা। তবে কাজের কাজ কিছুই হয়নি, জামিনে মুক্তি পেয়ে বাড়ি ফিরে এসে তারা আবার মা-বাবার ওপর আরো ক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে।

প্রতিদিন তাদের দাবিকৃত টাকা না দিলেই মা-বাবার ওপর চালাত অমানবিক নির্যাতন। মাদকের টাকার জন্য ঘরের নানার জিনিসপত্র বিক্রি করে দিয়েছে তারা। গত কয়েক বছরে ছেলের মাদক কেনার টাকার যোগান দিতে গিয়ে আর্থিক সংকটে পড়তে হয়েছে পরিবারের। প্রতিদিন ছেলের টাকা জোগাড় করতে এক সময়ের স্বচ্ছল মো. জামালের সংসারে অভাব দেখা দেয়। তাই ছেলেকে মাদকের টাকা দিতে পারছিলেন না তার বাবা-মা।
প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার মাদক কেনার জন্য মা-বাবার নিকট ২০ হাজার টাকা দাবি করে সুমন। কিন্ত টাকা দিতে ব্যর্থ হলে মা আকলিমা বেগমকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয় সুমন।

পিতা জামাল হোসেন অসহায়ের মতো অশ্রুসিক্ত কন্ঠে বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই মানুষ বানাতে চেয়েছিলাম, কিন্তু পারিনি। তাদের ভালো করতে থানায় সোপর্দ করেছি, পারিবারিকভাবে দফায় দফায় বৈঠক করে ব্যর্থ হয়েছি। মাদকের টাকা না দিলে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে মারপিট করত। আমার সন্তানের মতো এমন কুলাঙ্গার সন্তান যেন আর করো ঘরে জন্ম না নেয়। এ জন্য প্রশাসনের নিকট আমার ছেলের শাস্তি দাবি করছি এবং সংশোধনের ব্যবস্থা করার দাবী জানাচ্ছি’।

উল্লেখ্য, চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার বদরপুর (বেলতলী) এলাকাটি মাদকের রমরমা আসরে আচ্ছন্ন হয়ে থাকে। এলাকাটিতে মাদক বিক্রি ও সেবনের বিষয়টি যেনো ওপেন সিক্রেটের মতো।এখানে চলা মাদক বিক্রি, সেবন ও অশ্লীলতার বিরুদ্ধে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন উপজেলার সচেতন মহল।

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *