দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ১০৬ নাম্বারে ডায়াল করে আপনারা সুনির্দিষ্ট তথ্য দিবেন : দুদুকের ডিজি

চাঁদপুর প্রতিনিধি ॥

দুনীতি দমন কমিশন (দুদক)’র মহাপরিচালক মাহমুদুল হোসাইন খান বলেছেন, প্রতিটা স্কুল কলেজ এবং মাদ্রাসার ছেলে মেয়েদের নিয়ে তৈরি করা হয়েছে সততা সংঘ, পাশাপাশি তৈরি হবে সততা ষ্টোর। মানব বন্ধন এর মাধ্যমেও দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলন তৈরি করবো। দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ১০৬ ডায়াল করে আপনারা সুনির্দিষ্ট তথ্য দিবেন, ঘুষের বিরুদ্ধে সতর্ক হোন।তিনি রোববার দুপুরে দুদকের চাঁদপুর জেলায় সমন্বিত কার্যালয়ের উদ্বোধন উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন ,আমরা স্টেপ কেইস সমন্ধেও খুব সোচ্চার, তবে সন্মানিত ব্যাক্তিদের হয়রানি যেন না করা হয়, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া আমাদের তথ্য দিয়ে অনেক বড় সহযোগিতা করেন, দুদক বর্তমানে অনেক কাজই করে, মাঝে মাঝে হঠাৎ রেইট দেয়। ইউনাইটেড নেশন কনভেনশন তৈরি হয়েছে এখান থেকেও আমরা তথ্য নিয়ে কার্যক্রম করে থাকি, গণ শুনানি থেকেও আমরা কার্যক্রম করে থাকি, সরকার সচ্ছতার জন্য প্রত্যেকটি কাজের তথ্য সাইনবোর্ড আকারে তৈরি করে দেয় কিন্তু এরপরেও দুর্নীতি হয়।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন দুর্নীতি যারা করে তারা আমার দলের নয়, আপনার আমার পক্ষে ১ দিনেই সব কিছু সফল করা সম্ভব নয়, আসুন আমরা সবাই চেষ্টা করি নিজেই শুদ্ধ হই, তাহলেই আমরা সুন্দর দেশ গড়তে পারবো, আমরা যেন এই জেলাকে দুর্নীতি মুক্ত জেলা হিসাবে ঘোষণা করতে পারি সেই ভাবেই কাজ করার প্রত্যাশা করছি। আমাদের প্রত্যাশা আমরা সবাই একসাথে কাজ করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলবো।

ডিজি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন থেকে উন্নয়ন দেখে বিশ্ব আজ অবাক হয়েছে যেভাবে উন্নত হয়েছে এভাবে উন্নত হলে বিশ্বের মধ্যে রুহুল হিসাবে ভাই আমিতো পত্রিকা অফিসে ভাইমসরকারের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে

তিনি সকালে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, মানি লন্ডারিংয়ের অর্থ ফিরিয়ে আনতে দুদেশের পারস্পরিক সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন।

দুদক মহাপরিচালক আরো বলেন, দেশের অর্থ বিদেশে পাচার করা একটি মারাত্মক অপরাধ ও দেশদ্রোহীতামূলক কাজ। এই পাচার করা অর্থ দেশে ফিরিয়ে আনতে মানি লন্ডারিং আইন মোতাবেক কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন, যে অর্থগুলো বিদেশে পাচার হচ্ছে। তার সঙ্গে বিদেশী রাষ্ট্রগুলো জড়িত। সেক্ষেত্রে প্রয়োজন দুদেশের পারস্পরিক সহযোগিতা। আমরা বিদেশি রাষ্ট্রগুলোর কাছে পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মিউচুয়াল লিগ্যাল অ্যাসিস্টেন্স রিকুয়েস্ট পাঠিয়েছি। যদি বিদেশি রাষ্ট্রগুলো সঠিক তথ্য দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করে। তাহলেই আমাদের পক্ষে সম্ভব পাচার করা টাকা উদ্ধারে পদক্ষেপ গ্রহণ করা। আমরা সে চেষ্টাই করছি।

এর আগে তিনি চাঁদপুর শহরের ওয়্যারলেস বাজার এলাকায় দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় উদ্ভোধন করেন।

এসময় উপস্থিত চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান,লক্ষীপুর জেলা প্রশাসক মোঃ আনোয়ার হোসাইন আকন্দ, দুদকের সহকারি পরিচালক জয়নাল আবেদীন , চাঁদপুর জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, লক্ষীপুর সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ মোঃ শেখ সাদী, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি গিয়াসউদ্দিন মিলন, সাধারণ সম্পাদক রিয়াদ ফেরদৌস প্রমুখ।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published.