দেশ রক্ষায় লক্ষ-কোটি ছাত্র যুবককে জীবন দিতে প্রস্তুত থাকতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক :

১৯৭১ সালে জাতির পিতার আহ্বানে এদেশের লক্ষ-কোটি ছাত্র যুবক স্বাধীনতার জন্য জীবন দিতে প্রস্তুত ছিল। আজ সময় এসেছে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের লক্ষ-কোটি ছাত্র যুবককে দেশ রক্ষায় জীবন দিতে প্রস্তুত থাকতে হবে। বাংলাদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংসের জন্য একটি অপশক্তি দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

সোমবার (২৫ জুলাই) চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে পালাখাল রোস্তম আলী ডিগ্রি কলেজ মাঠে ছাত্র সমাবেশে প্রধান আলোচক হিসেবে আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই অপশক্তিটি বেশ কয়েক বছর ধরে শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে একের একের এক ষড়যন্ত্র করে পরাস্ত হয়েছে। শেখ হাসিনার সরকার উৎখাতের তাদের সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ হয়েছে। ষড়যন্ত্রে ব্যর্থ হয়ে এই চক্র দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করতে মেতে উঠেছে। এই অপশক্তিটি বেশ কিছুদিন ধরে বাংলাদেশকে শ্রীলঙ্কা বানানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

‘এই লক্ষ্যে তারা প্রতিদিন নানা গুজব ছড়াচ্ছে। তাদের একটাই উদ্দেশ্য- বাংলাদেশের অর্থনীতি ধ্বংস করা। কারণ তাদের ধারণা, দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করতে পারলে শেখ হাসিনার সরকার উৎখাত হবে। তাই আমাদের সবাইকে মুক্তিযুদ্ধের মতো দেশ রক্ষার জন্য অতন্দ্র প্রহরীর মতো কাজ করতে হবে। দেশবিরোধী এই ষড়যন্ত্র সম্পর্কে সজাগ থাকতে হবে। আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকারকে রক্ষা করা আর দেশ রক্ষা করা সমার্থক হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

সেলিম বলেন, সাধারণ সরকার প্রধান বা রাষ্ট্রনায়করা সমকালীন কিংবা দুই একটি প্রজন্মের কথা চিন্তা করে কর্ম-পরিকল্পনা করে। কিন্তু যারা মহানায়ক বা কালজয়ী রাষ্ট্রনায়ক তারা বহু প্রজন্ম কিংবা শতবর্ষ বা তারও বেশি সময়ের প্রজন্মের কল্যাণের কথা চিন্তা করে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেন। বাঙালির ইতিহাসে শেখ হাসিনা সেই মহানায়ক, কালজয়ী রাষ্ট্রনায়ক। তিনি বাংলাদেশের শত বছরের উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করে সেটি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। চার দশকের বেশি সময় ধরে মৃত্যুর ঝুঁকিকে পরোয়া না করে এদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন।

কচুয়া উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সালাউদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে ছাত্র সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা।

এ সময় আরও বক্তব্য দেন কচুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আইয়ুব আলী পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক সোহরাব উদ্দিন চৌধুরী সোহাগ, কচুয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও পৌর যুবলীগের সভাপতি মাহবুব আলম, কচুয়া উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মানিক ভৌমিক, পালাখাল রোস্তম আলী ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, মনির হোসেন ও হাবিব মজুমদার জয়সহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়কসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিটের নেতারা।

শেয়ার করুন: