নতুন শিক্ষাক্রমে ছেলেমেয়েরা আনন্দের সঙ্গে শিখবে: শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নতুন শিক্ষাক্রম যেটি করা হচ্ছে- সেটিকে বাস্তবায়নের আগে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, ‘এখানে একেবারে যে ভিন্ন কোনও পদ্ধতি চলে আসবে তা নয়। আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থায় যা আছে এর মধ্যে যেগুলো ভালো সেগুলো আমরা গ্রহণ করছি। নতুন শিক্ষাক্রমে ছেলেমেয়েরা আনন্দের সঙ্গে পড়াশোনা শিখবে।’

২ অক্টোবর শনিবার চাঁদপুর স্টেডিয়াম মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল প্রতিনিধি সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ‘এই শিক্ষাক্রমে আনন্দের মধ্য দিয়ে ছেলেমেয়েরা পড়ালেখা শিখবে। তারা কাজ করে শিখবে। কাজেই আমরা শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেবো। ইতোমধ্যে বেশ কিছু প্রশিক্ষণের কাজ চলমান রয়েছে। পাশাপাশি আমাদের টিচার্স গাইড তৈরি হবে। কাজেই শিক্ষকদের জন্য কোনও সমস্যা হবে না।’

তিনি বলেন, ‘শিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য সব কিছুই করা হচ্ছে। ২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ১০ বছর সব শিশুকে শিক্ষায় নিয়ে আসার জন্য কাজ করেছে সরকার। যখন সবাইকে আমরা শিক্ষার আওতায় আনতে পেরেছি, তখন শিক্ষার মানকে উন্নত করার জন্য বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি। আগেও মানের দিকে নজর ছিল। কিন্তু তখন সংখ্যাটাও একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল। এখন মানই সর্বোচ্চ গুরুত্বের বিষয়। সে জন্য কারিকুলাম সংশোধন, মূল্যায়ন পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, প্রযুক্তির ব্যবহার, অবকাঠামো উন্নয়ন- এর সবকিছুর মধ্য দিয়েই মানসম্মত শিক্ষা দেওয়া সম্ভব বলে বিশ্বাস করি। সেজন্য শুধুমাত্র বইয়ের পড়াশোনা নয়, বাচ্চারা খেলাধুলার মধ্য দিয়ে শিখবে, আনন্দ, কাজকর্ম, সমাজের নানা রকম কাজকর্ম দিয়ে শিখবে। যেটিকে বলে অভিজ্ঞতাভিত্তিক শেখা কিংবা করে শেখা। এই শেখাটা অনেক বেশি আনন্দময় হবে- আমরা সেটি চাই।’

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন- আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। আরও উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, চাঁদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মো. শফিকুর রহমান, চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. নুরুল আমিন রুহুল, সাবেক সংসদ সদস্য ড. মুহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল প্রমুখ।

তৃণমূল প্রতিনিধি সভায় জেলা, উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি ও নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *