পেন বাংলাদেশ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন রফিকুজ্জামান রণি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কবিতায় পেন বাংলাদেশ সাহিত্য পুরস্কার ২০২১ পেলেন চাঁদপুরের কৃতিসন্তান রফিকুজ্জামান রণি। ২০ নভেম্বর শনিবার কারাবন্দি লেখক দিবস উপলক্ষে ঢাকার ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস (ইউল্যাব) মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। সারাদেশ থেকে বেশ কয়েকজন লেখককে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। রফিকুজ্জামান রণি তাদের মধ্যে অন্যতম।

কবি শামীম রেজার সভাপতিত্বে ও পেন বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মহিউদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খ্যাতিমান কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন।

তিনি বলেন, ‘আমি কখনো ভাবিনি লেখক হবো। শিক্ষক ও মা-বাবার সহযোগিতায় আমি সাহিত্যিক হয়েছি। আমি সাহিত্যিক হবো তা ভেবে কখনো গল্প লিখিনি। পড়াশোনা জীবনে সিলেট এমসি কলেজে চাকরি পাই। তবে সেই চাকরি বাদ দিয়ে বাংলা একাডেমিতে চাকরির জন্য যাই। লেখালেখির অভ্যাস থাকায় সেখানে চাকরি হয়। এভাবে সাহিত্য আমাদের দিককে প্রসারিত করতে থাকে। অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন লেখক গৌরাঙ্গ মহার্ঘ, কবি জাহিদ সোহাগ ও কবি আসাদ মান্নান।

রফিকুজ্জামান রণির জন্ম ৩০ ডিসেম্বর, ১৯৯২; চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলায়, দোঘর গ্রামে। দীর্ঘদিন যাবৎ তিনি দেশের বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় লেখালেখি করছেন। এর আগে তিনি পেয়েছেন জেমকন তরুণ কবিতা পুরস্কারÑ২০১৯, ফ্রেন্ডস অব হিউম্যানিটি বাংলাদেশ অ্যাওয়ার্ডÑ২০২০; চাঁদপুর জেলা প্রশাসক পুরস্কারÑ২০১৮; এবং মানুষ পুরস্কারÑ২০১৯; দেশ পা-ুলিপি পুরস্কারÑ২০১৮; নাগরিক বার্তা লেখক সম্মাননাÑ২০১৯; চাঁদপুর সাহিত্য একাডেমী পুরস্কারÑ২০১৪; ফরিদগঞ্জ লেখক ফোরাম সাহিত্য পদকÑ২০১৩ সহ অসংখ্য পুরস্কার-সম্মাননা।

কবি-কথাসাহিত্যিক রফিকুজ্জামান রণি চাঁদপুর সরকারি কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্স-মাস্টার্স সম্পন্ন করেন। কুমিল্লা বঙ্গবন্ধু ল’ কলেজ থেকে লাভ করেন আইন বিষয়ক ডিগ্রি। বর্তমানে তিনি চর্যাপদ একাডেমির মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। চাঁদপুরের লিটলম্যাগ আন্দোলনের তিন অগ্রসৈনিকের মধ্যে রফিকুজ্জামান রণি অন্যতম। তার প্রকাশিত গ্রন্থ ৫টি: ধোঁয়াশার তামাটে রঙ; দুই শহরের জানালা; মুঠো জীবনের কেরায়া, চৈতি রাতের কাশফুল ও অতল জলের গাঁও।

উল্লেখ্য, দেশভাগের পর ১৯৪৮ সালে যাত্রা শুরু করে পেন ইন্টারন্যাশনালের শাখা ‘পাকিস্তান পেন’। ওই সময় এর সভাপতি ছিলেন ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন সৈয়দ আলী আহসান। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর এর নামকরণ করা হয় ‘পেন বাংলাদেশ’। পেন বাংলাদেশ হচ্ছে পেন ইন্টারন্যাশনালের ১৪৮টি কেন্দ্রের একটি শাখা। এটি বাংলাদেশের কবি, সাহিত্যিক, প্রকাশক, সম্পাদক, অনুবাদক, সাংবাদিক ও শিক্ষাবিদদের একটি দ্বিভাষিক সংগঠন, যা বাংলাদেশে সাহিত্যের প্রচার-প্রসার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা রক্ষার্থে কাজ করে।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *