পৌরসভার জরুরি সেবার আওতায় তিন শতাধিক নাগরিক পেয়েছেন অক্সিজেন, ডাক্তার মেডিসিন পরিবহন ও খাদ্য সহায়তা

বৈশ্বিক মহামারী করোনা বিস্তার রোধকল্পে এবং পৌরবাসীকে সার্বিক সহযোগিতার জন্যে মেয়র অ্যাডঃ মোঃ জিল্লুর রহমান জুয়েলের বদান্যতায় গঠিত হয়েছে পৌর মনিটরিং সেল। ইতিমধ্যে চাঁদপুর পৌর এলাকায় প্রায় তিন শতাধিক পৌর নাগরিককে দেয়া হয়েছে অক্সিজেন, মেডিসিন, ডাক্তার, পরিবহন ও খাদ্য সহায়তা।

জানা যায়, ২৭ জুলাই থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত ৪ দিনে চাঁদপুর পৌরসভার গঠিত কন্ট্রোল রুম পৌর নাগরিকদের মধ্যে ২৪০ জনকে খাদ্য সহায়তা, ৫ জনকে ডাক্তারী সহায়তা ৮ জনকে অক্সিজেন সহায়তা, ৪৫ জনকে পরিবহন সহায়তা প্রদান করা হয়। এই মনিটরিং সেলের আওতায় পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডে ২শ’ স্বেচ্ছাসেবক মাঠে কাজ করছে।

পৌরসভা মনিটরিং সেলের সদস্য সচিব ও চাঁদপুর টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা মোঃ মেহেদী হাসানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন , পৌর নাগরিকদের সেবায় ২৪ ঘন্টা কন্ট্রোল রুম ২৪ ঘন্টা খোলা রয়েছে। পৌর মেয়র মহোদয়ের নির্দেশে আমরা যে কোনো সেবা দিতে প্রস্তুত রয়েছি।

তিনি আরো বলেন, প্রতি ওয়ার্ডে ২ টি অটোরিকশা এবং ২টি মোটরচালিত রিক্সা সার্বক্ষণিক রয়েছে। পৌর নাগরিকদের প্রয়োজনীয় পণ্য ও মেডিসিন সরবরাহের জন্য রয়েছে ৬টি বাইক।এক কথায় চলমান লক ডাউন বাস্তবায়নে এবং করোনা বিস্তার রোধকল্পে পৌরবাসীকে ঘরে থাকুন, আসুন করোনা বিস্তার রোধকল্পে চলমান লক ডাউন বাস্তবায়ন করুন। এছাড়াও পৌরসভার মনিটরিং সেলের সদস্যরা এবং কিউআরসির সদস্যরা সকাল থেকে সড়কে, বিভিন্ন এলাকায়, শহরের বিভিন্ন মোড়ে মানুষকে মাইকিং করে জনসচেতন করেন। একই ভাবে পৌর পরিষদের সকল কাউন্সিলরগণও চলমান লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে রয়েছেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *