প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া গৃহহীন প্রকল্পের ঘর পায়নি ফরিদগঞ্জে কেউ

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি:

মুজিবর্ষ উপলক্ষে সারাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৬৬ হাজার ১শত ৮৯টি পরিবারকে ভূমি ও একক গৃহ প্রদান এবং ৩ হাজার ৭শত ১৫টি পরিবারকে জমিসহ পূনর্বাসন করলে ও চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে গৃহহীন প্রকল্পের ঘর ও জমি পায়নি কেউ।

এইদিকে ঘর দিতে না পারলেও সারাদেশের ন্যায় ফরিদগঞ্জ উপজলা প্রশাসন আয়োজন করল প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া গৃহহীন প্রকল্পের উদ্ধাধন অনুষ্ঠান পালন করল। ছিলােনা কােন অসহায় ও ভূমিহীন পরিবারের লােকজন। এই নিয়ে উপজলার সর্বমহলে চলছে কানাঘােষা। ফরিদগঞ্জে অসহায় ও ভূমিহীন বহু পরিবার থাকলেও কেন পায়নী প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর এমন প্রশ্ন সুুশীল সমাজ ও রাজনতিক মহলে।

এই বিষয়ে ১নং ৭নং ও ৮নং ইউনিয়নের স্থানীয় লােকজন বলেন, আমাদের ইউনিয়নের সকল অধিকাংশ জমি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ছিল। কিছু লােক বিক্রয় কের চেল যায়, আর কিছু লােকজন জমি রেখে চল যায়। এই সকল রেখে যাওয়া জমি স্থানীয় প্রভাবশালী লােকজন কােন এক অদৃশ্য শক্তির বলে নিজের নামে অন্তর্ভুক্ত করে রেখেছে । প্রশাসন চাইলে ওই সকল ভূমি উদ্ধার করে ভূমিহীনদের কাছে হস্তান্তর করতে পারে এবং প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া মজিববর্ষের উপহার গৃহহীন প্রকল্পের ঘর নির্মান করে দিত পারে।

ঘর না পাওয়ার বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিউলী হরি জানান, ফরিদগঞ্জ উপজেলায় নিষ্কণ্টক খাস ভূমি না পাওয়ায় ও উপজেলার অধিকাংশ এলাকা নিন্মাঞ্চল হওয়ায় উপযুক্ত উচুঁ ভূমির অভাবে ১ম পর্যায়ে কাউকে ঘর ও ভূমি প্রদান করা সম্ভব হয়নি। তবে তিনি ২য় পর্যায়ে ঘর দেওয়ার চেষ্টা করবাে।

এই বিষয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম রােমান বলেন, আমি অসুস্থ্য থাকার কারনে ঘরের বিষয়ে যানিনা। আমি এডিবির থেকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে অসহায় মানুষকে ঘর দেওয়ার কথা বলেছি। আজ প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধােধনের অনুষ্ঠানের বিষয়ে আমি অবগত ছিলাম না।

এবিষয়ে ফরিদগঞ্জ আসনের সংসদ সাংবাদিক মুহাম্মদ শফিকুর রহমান বলেন, আমাদের উপজেলায় পায়নি আগামীত পাবে। আমি তালিকা করে মন্ত্রনালয়ে পাঠিয়েছি ।

Recommended For You

About the Author: News Room

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *