প্রধানমন্ত্রী সবার কথা চিন্তা করেন:জেলা প্রশাসক

চাঁদপুর:

করোনা ভাইরাস কোভিড -১৯ সংক্রমনজনিত কারণে চাঁদপুর জেলার কর্মহীন শিল্পী ও সাহিত্যিকদের অনুকূলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে প্রাপ্ত অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (৬ মে) দুপুর ১২ টায় চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে এ চেক বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্জনা খান মজলিশ।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সবার কথা চিন্তা করেন। তাঁর চিন্তা থেকে কোন সেক্টর বাদ যায় না। সবধরণের মানুষ যেন ভালো থাকেন সবসময়ই তিনি তা নিয়ে চিন্তা করেন এবং ভাবেন। আর তাই তিনি এই করোনাকালীন সময়ে কর্মহীন শিল্পী সাহিত্যিকদের জন্যেও ১৩৯ টি চেক ১০ হাজার টাকা করে ১৩ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী চাঁদপুরবাসীর জন্যে ২কোটি ৩৮ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন। যা ইতিমধ্যে প্রত্যেক উপজেলায়, পৌরসভায়ও ইউনিয়নে বিতরণ করে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও গতকাল পর্যন্ত চাঁদপুর স্টেডিয়ামে প্রায় ৪ হাজার অসহায়, দুস্থ ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে ত্রান বিতরণ করা হয়েছে। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা রয়েছে আমরা সেই নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি। এছাড়াও আমাতের মন্ত্রী মহোতয়ও সবসময় চাঁদপুরবাসীর খোঁজখবর নেন, তিনিও সবসময়ই চাঁদপুরবাসীর কথা চিন্তা করেন। আপনারা সবাই প্রধানমন্ত্রীর জন্যে দোয়া করবেন।

জেলা শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার মোঃ আয়াজ মাবুদ’র সভাপতিত্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক (উপ-সচিব) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি তপন সরকার প্রমূখ।

জেলা শিল্পকলা একাডেমীর নির্বাহী সদস্য শহিদ পাটোয়ারী ও সাংবাদিক এমআর ইসলাম বাবু’র যৌথ সঞ্চালনায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ।

আলোচনা পর্ব শেষে করোনাকালীন সময়ে কর্মহীন শিল্পী সাহিত্যিকদের জন্যেও ১৩৯ টি চেক ১০ হাজার টাকা করে ১৩ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *