ফরিদগঞ্জে জেলে হত্যার ঘটনায় যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে জেলে অনাথ চন্দ্র দাসের খুনের ঘটনায় সোহাগ (২৬) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোহাগের বাড়ি ফরিদগঞ্জের কড়ৈতলী গ্রামে। বুধবার সকালে সোহাগের নিজ গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। অভিযুক্ত সোহাগ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন পিবিআই এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জুনায়েদ কাউসার। তিনি জানান, জেলে অনাথের প্রতিবেশী সুবল দাসের সাথে জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। এর জের ধরে গত ১৯ জুলাই সোহাগসহ আরো ৫জন অনাথ চন্দ্র দাসকে হত্যা করে। পরে মরদেহ খালের পানিতে ফেলে রাখে।

গ্রেফতারকৃত সোহাগ বৃহস্পতিবার আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। পরে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। আমরা হত্যাকান্ডের বিষয়ে অনেক তথ্য পেয়েছি। তবে তদন্তের সার্থে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন,অনাথের মরদেহ যেই খালে ফেলে রাখা হয় তার পাশের ভেলে জালে মাছ ধরতো আসামী সোহাগ। আমাদের কাছে তাকে সন্দেহজনক মনে হলে তাকে আটক করি। পরে তার কাছ থেকে ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করি এবং হত্যাকান্ডে জড়িতদের বিষয়ে তথ্য পাই।

সুবল সোহাগের কাছে কিছু টাকা পেত। এই হত্যাকান্ডে যোগ দিলে সেই টাকা মওকুফ করা হবে বলে তাকে প্রতিশ্রুতি দেয় সুবল। সেই প্রলোভনে সোহাগ এই হত্যাকান্ডে অংশ নেই।

শেয়ার করুন: