ফরিদগঞ্জে দুই কিলোমিটার কাঁচা রাস্তায় ভোগান্তি সহস্রাধিক মানুষের

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি॥

ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৬নং গুপ্টি(পশ্চিম)ইউনিয়নের খাজুরিয়া,হামছাপুর,হোগলী গ্রামের মধ্য দিয়ে বয়ে যাওয়া প্রায় দুই কিলোমিটার কাঁচা রাস্তার কারনে ভোগান্তি কয়েক হাজার মাসুষের।
ফরিদগঞ্জের অন্যান্য স্থানের রাস্তাগুলো পাকা-আধাপাকা করা হলেও দীর্ঘদিন অবহেলায় পড়ে আছে রাস্তাটি,লোকমুখে শুনতেপারা যায় কয়েকবার রাস্তাটি আধাাপাকা (ইটের সলিং) করার জন্য চেষ্টা করা হলেও অদিশ্য কারনে তা আর হয়ে উঠেনা। শুকনো মৌসুমে যাতায়াত উপযোগী হলেও বর্ষা মৌসুমে অত্যাধিক রিক্সা,অটো ও পন্যবাহী গাড়ী যাতায়াত করার কারনে রাস্তার মাঠি সরে গিয়ে তৈরি হয় বৃহৎ গর্তে,এতে হাঁটাচলা ও কষ্টকর হয়ে পড়ে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় দুটি প্রাথমিক বিদ্যালয়,একটি হাইস্কুল ও একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের অন্যতম রাস্তা এটি। এছাড়া খাজুরিয়া,হামচাপুর,হোগলি গ্রামের মানুষ এপথে যাতায়াত করে থাকেন।

সাম্প্রতিক সময়ে স্কুল খোলার কারণে শিক্ষার্থীদের পা কাঁদায় আটকে যাওয়ার পাশাপাশি নষ্ট হচ্ছে পোশাক এমন বক্তব্য দিয়েছেন কয়েকজন শিক্ষার্থী।

এলাকাবাসী জানায়, একটু বৃষ্টি হলেই এ রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করা যায়না,চিকিৎসা সহ জরুরি প্রয়োজনে পাওয়াযায়না কোন যানবাহন। একান্ত প্রয়োজনে পায়ে হেঁটে জরুরি যাতায়াত করতে হয় এতে কাঁদায় নষ্ট হয় গাঁয়ের পোশাক।

অটো ভ্যান ও রিক্সাচালকদের দাবী, ফরিদগঞ্জের আর কোথায়ও এমন কাঁচা রাস্তা নাই, এ রাস্তায় যাতায়াত করতে গিয়ে আমরা অনেকেই ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। তাই প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের প্রতি রাস্তাটি চলাচলের উপযোগী করার জন্য দাবী জানাচ্ছি।

সবচেয়ে বেশী ভুক্তভোগী হচ্ছেন স্থানীয় কৃষকরা। তারা তাদের উৎপাদিত সব্জি বাজারজাত করতে পারতেছেন না।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *