ফরিদগঞ্জে বশত ঘর পুড়ে ছাই

ফরিদগঞ্জ প্রতিবেদক :

ফরিদগঞ্জে একটি বশত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। উপজেলার পাইকপাড়ার ইউনিয়নের সর্দার বাড়িতে অগ্নিকান্ডটি ঘটে ১৫ নভেম্বর রাতে। এলাকাবাসীর চেষ্টায় আগুন নেভালেও ততক্ষণে ঘর এবং ভেতরে থাকা সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

প্রতিবেশিরা জানায়, শুক্রবার (১৫নম্বেভর) ভোরের কোন এক সময় আগুনের সূত্রপাত ঘটে। ঘরের মালিক মমতাজের ছেলে মোঃ মোস্তাফিজ জানান, আমরা আমাদের পুরান বাড়ি থেকে এখানে এসে আমাদের নিজস্ব ভূমিতে গত ৩/৪ মাস আগে বাড়িটি নির্মাণ করি।

নতুন ঘর নির্মাণে প্রায় ৬ লক্ষ টাকা ব্যয় হয়।গত রাত্রে আমরা আমাদের পুরান বাড়িতে রাত কাটাই। রাত প্রায় ৪ টার দিকে খবর পেয়ে ঘুম থেকে উঠে এসেদেখি, ঘরের আসবাবপত্রসহ সব পুড়ে চাঁই হয়ে গেছে। মোস্তাফিজের দাবি শত্রুতামি করে কেউ হয়তো আমাদের বাড়িতে আগুন দেয়। তার দাবি এতে করে তাদের ১০/১২ লাখ টাকার ক্ষতি হয়ে গেল। এ রাতে মমতাজ বেগম মেয়ের জামাইর অসুস্থতার কারনে তাকে দেখতে পাশের ভোটাল গ্রামে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী দোকানদার অজিউল্ল্যা বলেন আমি ভোরে দোকান খুলতে যাচ্ছিলাম। তাদের বাড়ীর কাছে গেলে দেখি মমতাজের বাড়ীটি আগুনে পুড়ে শেষ অবস্থা। পরে ঢাক চিৎকার শুরু করলে আশেপাশের লোকজন এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে এবং এলাকাবাসীর চেষ্টায় আগুন নেভানো হয়।

মমতাজ বেগমে কান্নাকন্ঠে বলেন, আমার সকল স্বপ্ন পুড়ে চাই, আমার ৩মেয়ে ১ছেলে আমার স্বামী মাওঃ আব্দুল রহমান ঢাকা রমনা পার্ক জামে মসজিদের ইমাম। অনেক ধার -দেনা করে বাড়ীটি করেছিলাম। ফরিদগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছেন।

Recommended For You

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *