বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী চাঁদপুরে উদ্যাপিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥

সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরেও বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়েছে। গতকাল ২৯ নভেম্বর সোমবার বিকেলে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের চট্টগ্রাম বিভাগের নির্বাহী সদস্য শহীদ পাটোয়ারীর সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় আলোচনা সভা ও নাট্যানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন,১৯৮০ সালে মাত্র ৩টি সংগঠণ নিয়ে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের যাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে ৩৩২টি সংগঠন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সদস্য অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। চাঁদপুর শহরের ৫টি নাট্য সংগঠন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটারফেডারেশানের সাথে জড়িত।

বক্তারা বলেন, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে সাংস্কৃতিক কর্মীদের বাৎসরিক যে সম্মানী দেয়া হয়, তাতে ‘অস্বচ্ছল সাংস্কৃতিক কর্মী’ শব্দটি ব্যবহার হয়ে থাকে। এ কথাটি বাদ দিয়ে ‘শিল্পী সম্মানী’ বলার জোর দাবি জানানো হয়। কারন, শিল্পীরা অস্বচ্ছল শব্দের কারেেন নিজেদেরকে অসম্মান করা হয় বলে জানান।

সভায় বক্তব্য রাখেন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, চাঁদপুর জেলা শাখা ও চাঁদপুর ড্রামার সভাপতি তপন সরকার, অনুপম নাট্যগোষ্ঠীর সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ ম-ল, অনন্যা নাট্যগোষ্ঠীর সাধারন সম্পাদক মৃণাল সরকার, বর্ণমালা থিয়েটারের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম, স্বরলিপি নাট্যগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম আর ইসলাম বাবু, মেঘনা থিয়েটারের সভাপতি তবিবুর রহমান রিংকু, চাঁদপুর ড্রামার সাধারন সম্পাদক মানিক পোদ্দার, অনুপম নাট্যগোষ্ঠী’র সহ-সভাপতি কার্তিক সরকার, চাঁদপুর ড্রামার সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম রণি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ ভূঁইয়া ও সহ-সভাপতি পরিমল দাস নুপুর, অনন্যা নাট্যগোষ্ঠী’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আলমগীর ও সদস্য হৃদয় কর্মকার, অনুপম নাট্যগোষ্ঠী’র সদস্য আঃ রশিদ প্রমুখ। আলোচনা পর্ব শেষে বেশ ক’টি নাটকের বিশেষ দৃশ্য পরিবেশন করে নাট্যভিনেতারা।

শেয়ার করুন: